সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

০৩ মে, ২০১৯ এর জনপ্রিয় ছবিগুলো

বার্তা২৪.কম এর ক্যামেরায় প্রতিদিনের ছবি

ভোরের দিকে খুলনার আকাশে মেঘ ছিল ভারি। ছবি : সুমন শেখ

ভোরের দিকে খুলনার আকাশে মেঘ ছিল ভারি। ছবি : সুমন শেখ

ফণীর প্রভাব নেই খুলনার রুপসা নদীতে। ছবি : সুমন শেখ

ফণীর প্রভাব নেই খুলনার রুপসা নদীতে। ছবি : সুমন শেখ

বেলা বাড়ার সাথে সাথে আকাশের কালো মেঘের ছায়া পরেছে মংলা নদীতে। ছবি : সুমন শেখ

বেলা বাড়ার সাথে সাথে আকাশের কালো মেঘের ছায়া পরেছে মংলা নদীতে। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্নিঝড় ফণীর প্রভাবে মংলার আকাশে কালো কালো মেঘের ছোপ। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্নিঝড় ফণীর প্রভাবে মংলার আকাশে কালো কালো মেঘের ছোপ। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্নিঝড় ফণীর প্রভাবে মংলার আকাশে কালো কালো মেঘের ছোপ। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্নিঝড় ফণীর প্রভাবে মংলার আকাশে কালো কালো মেঘের ছোপ। ছবি : সুমন শেখ

যেকোনো মুহূর্তে ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানতে পারে সুন্দরবন ও খুলনার মংলা সমুদ্রবন্দরে। ছবি : সুমন শেখ

যেকোনো মুহূর্তে ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানতে পারে সুন্দরবন ও খুলনার মংলা সমুদ্রবন্দরে। ছবি : সুমন শেখ

যেকোনো মুহূর্তে ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানতে পারে সুন্দরবন ও খুলনার মংলা সমুদ্রবন্দরে। ছবি : সুমন শেখ

যেকোনো মুহূর্তে ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত হানতে পারে সুন্দরবন ও খুলনার মংলা সমুদ্রবন্দরে। ছবি : সুমন শেখ

মাঝি ও উপকূলবাসীদের সতর্ক করতে মাইকিং করে চলছে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ছবি : সুমন শেখ

মাঝি ও উপকূলবাসীদের সতর্ক করতে মাইকিং করে চলছে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ছবি : সুমন শেখ

মাঝি ও উপকূলবাসীদের সতর্ক করতে মাইকিং করে চলছে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ছবি : সুমন শেখ

মাঝি ও উপকূলবাসীদের সতর্ক করতে মাইকিং করে চলছে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ছবি : সুমন শেখ

সমুদ্রে ৭নং বিপদ সংকেতের কারনে ঘাটে ফিরে আসে সব জেলেদের নৌকা। ছবি : সুমন শেখ

সমুদ্রে ৭নং বিপদ সংকেতের কারনে ঘাটে ফিরে আসে সব জেলেদের নৌকা। ছবি : সুমন শেখ

সমুদ্রে ৭নং বিপদ সংকেতের কারনে ঘাটে ফিরে আসে সব জেলেদের নৌকা। ছবি : সুমন শেখ

সমুদ্রে ৭নং বিপদ সংকেতের কারনে ঘাটে ফিরে আসে সব জেলেদের নৌকা। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে চলে যাওয়ার কারনে খালি পরে আছে জয়মনি ঘোলের ঘরগুলো। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে চলে যাওয়ার কারনে খালি পরে আছে জয়মনি ঘোলের ঘরগুলো। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে চলে যাওয়ার কারনে খালি পরে আছে জয়মনি ঘোলের ঘরগুলো। ছবি : সুমন শেখ

ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা নিরাপদ আশ্রয় কেন্দ্রে চলে যাওয়ার কারনে খালি পরে আছে জয়মনি ঘোলের ঘরগুলো। ছবি : সুমন শেখ

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও শুকনা খাবার সাথে নিয়ে পার্শ্ববর্তী সাইক্লোন সেন্টারে আশ্রয় নিতে যাচ্ছেন সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা। ছবি : সুমন শেখ

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও শুকনা খাবার সাথে নিয়ে পার্শ্ববর্তী সাইক্লোন সেন্টারে আশ্রয় নিতে যাচ্ছেন সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা। ছবি : সুমন শেখ

ইতোমধ্য‌ে অনেকে নিরাপদ আশ্রয়ে অবস্থান নিয়েছে মংলার সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা। ছবি : সুমন শেখ

ইতোমধ্য‌ে অনেকে নিরাপদ আশ্রয়ে অবস্থান নিয়েছে মংলার সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা। ছবি : সুমন শেখ

ইতোমধ্য‌ে অনেকে নিরাপদ আশ্রয়ে অবস্থান নিয়েছে মংলার সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা। ছবি : সুমন শেখ

ইতোমধ্য‌ে অনেকে নিরাপদ আশ্রয়ে অবস্থান নিয়েছে মংলার সমুদ্র উপকূলীয় গ্রামের মানুষেরা। ছবি : সুমন শেখ

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র