উদ্বোধনের আগেই তিস্তা সেতুর সংযোগ সড়কে ধস

শেখ হাসিনা তিস্তা সড়ক সেতু, ছবি: বার্তা২৪

লালমনিরহাট ও রংপুরবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্নের সেতু ‘শেখ হাসিনা তিস্তা সড়ক সেতু’। গঙ্গাচড়ার মহিপুর ও কালিগঞ্জের কাকিনা প্রান্তে নির্মিত এই সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের বাকি মাত্র দুইদিন। এরই মধ্যে আবারো ধসে গেছে উত্তরপ্রান্তের কাকিনা রুদ্রেশ্বর সীমান্তের সংযোগ সড়কের সেতু ও কালভার্টের ব্লক পিচিং। এতে বহুল প্রত্যাশিত শেখ হাসিনা তিস্তা সড়ক সেতুটি এখন লালমনিরহাটের সঙ্গে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

এদিকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই সড়কে স্বাভাবিক যোগাযোগ নিশ্চিত করার জন্য এলজিইডি ও পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঁঙ্গা এমপি।

স্থানীয়রা বলছেন, স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদপ্তরের নজিরবিহীন গাফিলতির কারণেই এঘটনা ঘটেছে। মূল সেতুর সাথে ৫ কিলোমিটার সংযোগ সড়কের ভয়াবহ নড়েবড়ে অবস্থা দেখে আগে থেকেই সতর্ক করা হয়েছিলো সংশ্লিষ্টদের। কিন্তু বিষয়টিকে গুরুত্ব দেয়নি তারা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Sep/14/1536924210116.jpg

অন্যদিকে কালিগঞ্জ স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের দাবি, উজান থেকে নেমে আসা ঢলে তিস্তায় পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদীর গতিপথ পরিবর্তন হয়ে শেখ হাসিনা সেতুর সংযোগস্থলে তীব্র বেগে আঘাত হানায় সংযোগ সেতু ও নতুন ব্লক পিচিং ধসে পড়েছে। সংযোগ সড়কের ভাঙন ঠেকাতে সেতুর সামনে জরুরি ভিত্তিতে বালির বস্তা ফেলে ডাম্পিং করা হচ্ছে।

নদীতে আকস্মিক বৃদ্ধি পাওয়া পানি মূল তিস্তায় না গিয়ে কোলকোন্দ ইউনিয়নের বিনবিনা নামক স্থান দিয়ে গতিপথ পরিবর্তন করে আর একটি চ্যানেল তৈরি করেছে। এই চ্যানেলের পানির স্রোত ও তীব্রতা মূল তিস্তার চেয়ে অনেক বেশি। গত বছরও পানির আঘাতে সংযোগ সেতুর এই অংশে ভাঙন ধরেছিলো।

স্থানীয়রা জানান, সেরাজুল মার্কেট এলাকায় নির্মিত ব্রিজের দুই কোনায় পানি তীব্র বেগে এসে আঘাত করছে। ব্রিজের দক্ষিণ পাশের সংযোগস্থলে সাম্প্রতিককালের ব্লক-পিচিং ধসে গেছে। তাছাড়া ইচলি এলাকায় একটি কালভার্টের দুই পাশে ভাঙন দেখা দিয়েছে। লোকজন ভাঙন ঠেকাতে বালির বস্তা দিচ্ছে। উজানে বাঁধ না দিলে এই ব্রিজ ও কালভার্ট রক্ষা করা যাবে না। সেই সাথে রাস্তাঘাট-ঘরবাড়ি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সবই ভেঙে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশংকা রয়েছে। এদিকে ধসে যাওয়ার এই ঘটনায় ওই এলাকার মানুষের মধ্যে প্রচন্ড ক্ষোভ বিরাজ করছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Sep/14/1536924228482.jpg

স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঁঙ্গা এমপি বার্তা২৪.কমকে জানান, আগামী রোববার আমাদের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নের এই শেখ হাসিনা তিস্তা সড়ক সেতুটির উদ্বোধন করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। এরআগে সংযোগ সড়কের ব্রীজের মোকা ধসে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার ঘটনা খুবই দু:খজনক। আমি এলজিইডি এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশ দিয়েছি শনিবার বিকেল ৫ টার মধ্যেই ধসে যাওয়া অংশ সংস্কার করে পুরোপুরি যোগাযোগ উপযোগি করতে হবে।

এসময় তিনি বলেন, এই সংযোগ সড়ক নির্মানে অনিয়মের সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর রোববার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গঙ্গাচড়ার মহিপুর-কাকিনা ঘাটে নির্মিত শেখ হাসিনা তিস্তা সড়ক সেতু এবং রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরপিএমপি) এর অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

 

জাতীয় এর আরও খবর