বইমেলায় ডা. নৌশাদের 'ভালো মৃত্যুর অন্বেষায়'

ছবি: বার্তা২৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

প্রফেসর ডা. নৌশাদ খান কেবলমাত্র একজন সুচিকিৎসক ও সামাজিক উদ্যোক্তাই নন, তিনি একজন মোটিভেটর ও বিদগ্ধ গবেষক। বইমেলায় তিনি 'ভালো মৃত্যুর অন্বেষায়' শিরোনামে বই নিয়ে আবির্ভূত হলেন লেখক হিসাবে।

কিশোরগঞ্জের মতো মফস্বলে তিনি একাধারে গড়েছেন প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজ, বৃহত্তর ময়মনসিংহের প্রথম বেসরকারি উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঈসা খা বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, ক্লিনিক, নাসিং ট্রেনিং কলেজ, ম্যাটারনিটি হোম ইত্যাদি অসংখ্য প্রতিষ্ঠান। কর্ম ও জীবিকারর পথ খুলে দিয়েছেন শত শত তরুণ-তরুণীর জীবনে।

এতো কিছু করেও প্রফেসর ডা. নৌশাদ খান ধর্ম, দর্শন, বিজ্ঞান নিয়ে প্রতিনিয়ত চর্চা ও গবেষণা করেন। নিয়মিত বক্তব্য রেখে প্রণোদিত করেন যুব ও তরুণ প্রজন্মকে। তার চিন্তা-ভাবনাগুলোই লিখিত রূপ পেয়েছে 'ভালো মৃত্যুর অন্বেষায়' গ্রন্থে।

বার্তা২৪.কমকে প্রফেসর ডা. নৌশাদ খান বলেন, 'এই অপার বিস্ময়কর ও রহস্যময় জীবনের সফল পরিসমাপ্তির জন্য দরকার "খাতেমা বিল খায়ের" বা ভালো মৃত্যু। এর মানে হলো, জ্ঞানের প্রতিটি শাখা থেকে প্রজ্ঞাময় নির্দেশনা নিয়ে জীবনকে সফল করে অমোঘ ও অলঙ্গনীয় মৃত্যুতে যাওয়া।'

তিনি বলেব, 'প্রাকৃতিক ও জৈবিকভাবে সকল প্রাণিকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে। এ ক্ষেত্রে সফল জীবনই ভালো মৃত্যুর মাধ্যমে পরকালের সফলতার নিয়ামক।'

প্রফেসর ডা. নৌশাদ খান 'ভালো মৃত্যুর অন্বেষায়' গ্রন্থটিকে ধর্ম, দর্শন, বিজ্ঞানের আলোকে প্র্যাকটিকেল গাইডবুকের মতো সাজিয়েছেন, যা সফল জীবন শেষে ভালো মৃত্যুর মাধ্যমে পারলৌকিক সফলতার দিকনির্দেশনা দেবে। জাগতিক ইহলৌকিকতা আর পারলৌকিকতার ভারসাম্যের ভেতর দিয়ে জীবন ও মরণের সফলতার সূত্রগুলোই তিনি ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ ও বৈজ্ঞানিক তথ্যের মাধ্যমে উপস্থাপিত করেছেন এ গ্রন্থে।

'ভালো মৃত্যুর অন্বেষায়' গ্রন্থটি প্রকাশ করেছে কালো প্রকাশনা সংস্থা। বাংলা একাডেমীর একুশে বইমেলায় কালো'র ৩৩৬ নং স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে।

জাতীয় এর আরও খবর

ঢামেক মর্গে ড.কামাল

রাজধানীর চাকবাজার চুড়িহাট্টা অগ্নিকাণ্ডের পোড়া মরদেহ দেখতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে গিয়েছেন ঐক্যফ্...