Barta24

রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

গাইবান্ধায় অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার

গাইবান্ধায় অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার
ছবি: সংগৃহীত
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
গাইবান্ধা


  • Font increase
  • Font Decrease

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় অজ্ঞাত নারী (৩০) এর এক লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। শনিবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের চকনারায়ণ গ্রামের একটি ফাঁকা মাঠ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

রসুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আতাউর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, চকনারায়ণ গ্রামের খাসা মিয়ার বাড়ির উত্তর পাশের আনছার আলীর জমিতে অজ্ঞাত নারীর লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় জনগণ।

শনিবার সকাল ৮টার দিকে এ লাশ দেখার পর পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পরে সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ ওই ১১টার দিকে নারীর মরদেহ উদ্ধার করে। ওই নারীকে শ্বাসরুদ্ধ করার পর হত্যা করে লাশ ফেলে রাখা হয়েছে বলে এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে।

সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরশেদুল হক বলেন, নারীর লাশ উদ্ধারের সময় একটি মোবাইল ফোন পাওয়া গেছে। ফোনটিতে একাধিক কল আসছিল। পরে একটি নাম্বারে কলব্যাক করা হলে রিসিভ করে সে মায়ের পরিচয় দেন। এছাড়াও সঠিক নাম ঠিকানা পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান ওসি।

আপনার মতামত লিখুন :

টেকনাফে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা নারী আটক

টেকনাফে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা নারী আটক
আটক জোহরা, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

কক্সবাজারের টেকনাফে দুই হাজার ৯৬০ পিস ইয়াবাসহ জোহরা বেগম (৩২) নামে রোহিঙ্গা এক মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে র‌্যাব। তিনি বাংলাদেশে আশ্রিত পুরনো রোহিঙ্গা বলে জানা গেছে।

শনিবার (২০ জুলাই) রাতে টেকনাফ উপজেলার লেদা ২৪ নম্বর রোহিঙ্গা শিবিরের বি ব্লক থেকে তাকে এ ইয়াবাসহ আটক করা হয়।


আটক জোহরা লেদা ২৪ নং রোহিঙ্গা শিবিরের বি ব্লকের ১১৫ নম্বর রুমের সৈয়দ আলমের স্ত্রী।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-১৫ টেকনাফ ক্যাম্প ইনর্চাজ লেফটেন্যান্ট মো. মির্জা শাহেদ মাহতাব (এক্স) জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল জোহরাদের ঘরে অভিযান চালায়। এ সময় তাদের ঘরে দুই হাজার ৯৬০ পিস ইয়াবা পাওয়ায় তাকে আটক করা হয়।

জব্দ করা ইয়াবাসহ আটক নারীকে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

চরভদ্রাসনে বন্যার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

চরভদ্রাসনে বন্যার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলায় বন্যার পানিতে ডুবে তাকিয়া আক্তার (২) নামে একটি শিশু মারা গেছে।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে সে নিখোঁজ হয়। পরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তার মৃতদেহ বাড়ির উঠানে বন্যার পানিতে ভাসতে দেখা যায়।

তাকিয়া উপজেলার চর হরিরামপুর ইউনিয়নের ছমির বেপারির ডাঙ্গী গ্রামের কামাল খানের মেয়ে।

তাকিয়ার মা সীমা বেগম জানান, দুপুর ২টার দিকে তিনি তার মেয়েকে বিছানায় ঘুম পড়িয়ে রেখে সাংসারিক কাজ করছিলেন। এরপর থেকে তাকিয়াকে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে সন্ধ্যায় উঠানে বন্যার পানিতে শিশুটির মৃতদেহ পাওয়া যায়। ধারণা করা হচ্ছে, সে ঘুম থেকে উঠে হাঁটতে হাঁটতে পানিতে পড়ে যায়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র