Alexa
independent day 2019

জিতছে ঢাকা, দেখছে দেশ!

জিতছে ঢাকা, দেখছে দেশ!

জয়ের ছন্দে উড়ছে ঢাকা ডায়নামাইটস- ছবি: বিসিবি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম

বলতে গেলে এই ম্যাচের ফল জানা হয়ে গেল, সিলেট ইনিংসের পাওয়ার প্লেতেই! ব্যাটিংয়ের সব পাওয়ার তো তাদের পাওয়ার প্লে’তেই শেষ। ৬.১ ওভারেই ৩৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে সিলেটের ধুঁকে চলা শুরু। বাকি সময় জুড়ে একটাই অপেক্ষায় এই ম্যাচে কত রানে জিতছে ঢাকা ডায়নামাইটস। সেই উত্তর মিললো সিলেটের ইনিংস শেষে। ঢাকা ম্যাচ জিতলো ৩২ রানে।

একা শুধু নিকোলাস পুরান ৯ ছক্কায় ৪৭ বলে ৭২ রানের রানের ইনিংস খেলে ব্যাট হাতে কিছুটা সাহস দেখালেন। আর সিলেটের বাকিরা সবাই মিলে করলেন মাত্র ৬৯ রান!

চার ম্যাচের চারটিতেই জিতে এবারের বিপিএলে সাকিব আল হাসানের ঢাকার শুরুটা হলো স্বপ্নের মতো। হোম ভেন্যুতে টুর্নামেন্টের প্রথম পর্বে ঢাকার সাফল্য শতভাগ। চার ম্যাচেই বড় রান তুলেছে ঢাকা। ব্যাটিং-বোলিং সব বিভাগেই দারুন দক্ষতা দেখিয়ে টুর্নামেন্টের একমাত্র দল হিসেবে অপরাজিত থেকেই দ্বিতীয় পর্ব খেলতে সিলেট যাচ্ছে ঢাকা ডায়নামাইটস।

জিতবে ঢাকা, দেখবে দেশ-ডায়নামাইটসের শ্লোগানের সঙ্গে দারুণ ভাবে মিলে গেলো এবারের বিপিএলের শুরুর অংশ!

ঢাকার ৭ উইকেটে ১৭৩ রানের জবাবে খেলতে নামা সিলেট শুরু থেকেই উইকেট হারায়। দলের প্রথম চার ব্যাটসম্যান ফিরলেন সিঙ্গেল ডিজিটে। সাকিব, নারিন ও শুভগত হোম-ঢাকার তিন স্পিনার প্রত্যেকেই শুরুতেই সাফল্য পেলেন। রুবেল হোসেন ম্যাচে নিজের প্রথম বলেই বিদায় করলেন সাব্বির রহমানকে। সিলেটের ব্যর্থ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে নাসির হোসেনের আউটের ধরনটা সবচেয়ে বেশি সমালোচনা কুড়াচ্ছে। বারবার উইকেট ছেড়ে বেরুচ্ছেন কিন্তু শট খেলতেই পারছেন না। যে বলে শটস খেললেন তাতেই ক্যাচ আউট। ৮ বলে ১ রান করে সাকিবের বলে বাউন্ডারি লাইনে আন্দ্রে রাসেলের হাতে ক্যাচ আউট হওয়ার পর নাসির হাতে ধরা ব্যাটের দিকে সন্দেহের নজরে তাকাচ্ছিলেন; যেন সব দোষ তার ঐ ব্যাটের ব্লেডে!

আগের ম্যাচের হ্যাটট্রিকম্যান আলিস আল ইসলাম যখন বল হাতে আক্রমণে এলেন ততক্ষনে সিলেটের ছয় উইকেট নেই! পেছনের ম্যাচ গুলোর মতো এই ম্যাচেও ব্যাটসম্যান হিসেবে সিলেটের একজনকেই দেখা গেল; নিকোলাস পুরান। তার ৭২ বলের ইনিংস সিলেটের হারের সময়কে কেবল একটু দীর্ঘায়িত করলো!

নিজ ভেন্যুতে পরের পর্বে মাঠে নামার আগে সিলেট সিক্সার্সকে যা নিয়ে সবচেয়ে বেশি হোমওয়ার্ক করতে হবে, তার নাম; ব্যাটিং!

টসে জিতে ঢাকা ডায়নামাইটস রাতের ব্যাটিং বেছে নেয়। ঢাকার ব্যাটিংয়ের সেরা ইনিংস খেলেন মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান রনি তালুকদার। ৩৪ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৫৮ রানে উজ্জ্বল তার ব্যাট।

তাসকিন আহমেদের পেসে ঢাকার ইনিংস মাঝপথে একটু পথ হারালেও ঠিকানা ঠিক করে দেন নিচের দিকের দুই ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান ও মোহাম্মদ নাঈম। দুজনে অষ্টম উইকেট জুটিতে মাত্র ৩৫ বলে যোগ করেন হার না মানা ৪৮ রান। ঢাকাকে ১৭৩ রানের বড় সঞ্চয় এনে দেয়ার অন্যতম কারিগর এই জুটি।

তাসকিন আহমেদ ৩৮ রানে ৩ উইকেট শিকারের আনন্দও উপভোগ করতে পারলেন না। মাত্র ৫ বলের ব্যবধানে পোলার্ড, রাসেল ও শুভগত হোমের উইকেট তুলে নেন তাসকিন। একতরফা ভঙ্গিতে হারা ম্যাচে বিজিত দলের কারোর ব্যক্তিগত পারফরমেন্স কে মনে রাখে!

ক্রিকেটও যে বিজয়ীর গানই বেশি গায়!

সংক্ষিপ্ত স্কোর: ঢাকা ডায়নামাইটস: ১৭৩/৭ (২০ ওভারে, নারিন ২৫, রনি ৫৮, সাকিব ২৩, সোহান ১৮*, নাঈম ২৫*, তাসকিন ৩/৩৮)। সিলেট সিক্সার্স: ১৪১/৯ (২০ ওভারে, পুরান ৭২, সাব্বির ১২, তাসকিন ১৮*, রুবেল ৩/২২, সাকিব ২/৩৪, শুভগত ২/২৮)। ফল: ঢাকা ৩২ রানে জয়ী।

খেলা এর আরও খবর