Alexa

শোকের সঙ্গে স্বস্তিও আছে সাকিব-রুবেলদের

শোকের সঙ্গে স্বস্তিও আছে সাকিব-রুবেলদের

সতীর্থরা ভাল আছে, স্বস্তিতে সাকিব

দলের সঙ্গে থাকার কথা ছিল তারও। কিন্তু ইনজুরির কারণে সাকিব আল হাসান মিস করেছেন পুরো সফরটাই। দেশে থাকা এই অলরাউন্ডার সকালে ঘুম ভাঙতেই শুনেছেন সেই দুঃসংবাদটা। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে নির্মম সন্ত্রাসী হামলার খবরটা শুনতেই মনটা বিষন্ন হয়ে আছে তার। একইসঙ্গে কিছুটা স্বস্তিতেও আছেন এই অলরাউন্ডার। আরেকটু হলে যে তার সতীর্থরাও পড়তে যাচ্ছিল এই সন্ত্রাসী হামলায়।

শুক্রবার জুমার নামাজের সেই হামলার দুঃসহ অভিজ্ঞতা হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলেরও। মিনিট পাঁচেক আগে মসজিদে গেলে তারাও পড়তে পারতেন হামলায়। সেই আতঙ্ক নিয়ে তামিম ইকবাল টুইট করতেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন সাকিব। এরপরই নিউজিল্যান্ডে সতীর্থরা কেমন আছেন সেই খোঁজ রাখছেন তিনি।

টুইটারকে এই তারকা ক্রিকেটার লিখলেন, ‘ক্রাইস্টচার্চের সন্ত্রাসী হামলা নিয়ে কিছু বলার নেই আমার। শুধু এটাই বলতে পারি- মহান আল্লাহপাকের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। তিনি আজ আমার ভাই ও সতীর্থদের বাঁচিয়ে দিয়েছেন। আলহামদুলিল্লাহ।’

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে হামলায় মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছেই। সর্বশেষ খবর নিহত মানুষের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ জনে ছুঁয়েছে। মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন আরো কমপক্ষে ২০ জন।

সন্ত্রাসী হামলায় আক্রান্ত ক্রাইস্টচার্চে মসজিদ আল নুরে নামাজ পড়ার অভিজ্ঞতা আছে রুবেল হোসেনের। নিউজিল্যান্ডে ওয়ানডে সিরিজ খেলে দেশে ফেরা এই পেসারও এখন শোকাহত। শুক্রবার ফেসবুকে নিজের অফিসিয়াল পেজে তিনি লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহ সব কিছুর মালিক। এই মসজিদে আমিও নামাজ পড়ে এসেছি। এটা একটা পরিকল্পিত হামলা। মহান আল্লাহর কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া আমাদের ক্রিকেটারদের রক্ষা করেছেন এত বড় একটা দুর্ঘটনা থেকে... যে সমস্ত মুসলমান ভাইয়েরা মারা গেছে আল্লাহ তাদেরকে জান্নাত নসিব করুন আমিন।’

শুধু সাকিব-রুবেলরাই নন, গোটা ক্রিকেট বিশ্ব এই ঘটনায় শোকাহত। নিন্দার ঝড় উঠেছে। এরইমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিরাট কোহলি, শোয়েব আখতার, ইমরান খান, হর্শা ভোগলে, শহীদ আফ্রিদি, বিরাট কোহলি, ভিভিএস লক্ষ্মণ, রবিচন্দ্রন অশ্বিনসহ অনেকে ক্রিকেট তারকাই।

আপনার মতামত লিখুন :