খুলনা-২: আ.লীগে নতুন চমক, বিএনপিতে...

খুলনা-২ আসন। ছবি: বার্তা২৪.কম

পদ্মার এপারে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হল খুলনা-২ আসন। সদর ও সোনাডাঙ্গা থানা নিয়ে খুলনা-২ আসন গঠিত। দেশের অন্যান্য স্থানের মতো দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মর্যাদাপূর্ণ এ আসনেও নির্বাচনী হাওয়া বইছে। আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় তোরণ, প্যানা, ফেস্টুন, ব্যানার শোভা পাচ্ছে।

জানা গেছে, ১৯৭৩ সালের পর গত ৪১ বছরে আর কখনো খুলনা-২ আসন থেকে নির্বাচিত হতে পারেনি আওয়ামী লীগের প্রার্থী। যে কারণে এ আসনটি বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে খ্যাত। ৪১ বছর পর গত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অনুপস্থিতির সুযোগে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান এখানে এমপি নির্বাচিত হন।

তাই দীর্ঘদিন পর ফিরে পাওয়া এ আসন হাতছাড়া করতে নারাজ আওয়ামী লীগ। আর ক্লিন ইমেজ এবং নতুনত্বের চমকে এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থিতা ঘোষণা করা হয়েছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে গত ২৫ অক্টোবর মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাতিজা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েলকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘোষণার মাধ্যমেই আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেছেন শেখ সালাহ উদ্দিন জুয়েল।

অপরদিকে ৪১ বছর ধরে দখলে থাকা আসনটি পুনরুদ্ধারের জন্য মরিয়া বিএনপি। যার প্রস্তুতিও নিচ্ছে দলটি। খুলনা বিভাগীয় শহরের সদরের এ আসন থেকে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। দলের মহানগর সভাপতি ছাড়াও বর্তমানে বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। এবারও তার ওপরেই ভরসা রাখছে দলের নীতি-নির্ধারণী মহল।

এছাড়াও খুলনা-২ আসনে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেছে চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। ইশা আন্দোলনের পক্ষ থেকে এ আসনের ভোট যুদ্ধে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে দলের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির হাফেজ অধ্যক্ষ আব্দুল আউয়ালকে।

জাতীয় পার্টির হয়ে এ আসন থেকে নির্বাচন করতে পারেন দলের মহানগর কমিটির সদস্য সচিব শওকত হোসেন বাবুল।

মহাজোটের শরিক দল জাসদের টিকিট নিয়ে এ আসনে নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন দলের মহানগর সাধারণ সম্পাদক এস এম খালিদ হোসেন।

এছাড়াও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) কাস্তে মার্কার পক্ষে খুলনা-২ আসনে নগর সভাপতি এইচ এম শাহাদাৎ প্রার্থিতা ঘোষণা দিয়েছেন।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য মতে, খুলনা-২ আসনের মোট ভোটার ২ লাখ ৯৪ হাজার ৮৩ জন। এর মধ্যে সদর থানায় মোট ভোটার ১ লাখ ৬৮ হাজার ৮১০ জন ও সোনাডাঙ্গা থানায় মোট ভোটার ১ লাখ ২৫ হাজার ২৭৯ জন।

নির্বাচন এর আরও খবর