নুর হোসেনকে বলির পাঠা বানানো হয়েছে

আলোচনা সভায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়

 

নুর হোসেনকে বলির পাঠা বানানো হয়েছে। আর এটা ইস্যু তৈরির জন্য করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়।

শনিবার (১০ নভেম্বর) জাপার বনানী কার্যালয়ে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা হিন্দু মা কালীর সামনে বলি দেওয়ার জন্য পাঠা সুন্দর করে সাজিয়ে গুছিয়ে নিয়ে যাই। বলি হয় পাঠা আর আমাদের পূণ্য হয়। তেমনি নুর হোসেনকে বলির পাঠা বানানো হয়।

নুর হোসেনের সামনে ছিলো পুলিশ, যদি পুলিশের গুলিতে সে মারা যায় তাহলে তার বুকে গুলি লাগার কথা। কিন্তু গুলি লেগেছিলো তার পিঠে, এতেই বুঝা যায় ঘটনা কি ছিলো।

সুনীল শুভরায় বলেন, আজকের এই দিনে ১৯৮৬ সালে এরশাদ সংসদে ভাষন দিয়ে সামরিক আইন বাতিল ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করছিলেন। সেদিন এরশাদ বলেছিলেন, দেশে আর কখনও সামরিক শাসন আসবে না। আর কখনও সামরিক শাসন আসেনি। যে কারণে আজকের দিনটি গণতন্ত্র দিবস হওয়া উচিত। সে কারণে আজকে গণতন্ত্র দিবস পালন করা হচ্ছে। আর অন্যদিকে তথাকথিত নুর হোসেন দিবস পালন করা হচ্ছে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কো চেয়ারম্যান জিএম কাদের, অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, এসএম ফয়সল চিশতী প্রমুখ।

রাজনীতি এর আরও খবর