বিকেলে ‘হ্যাঁ’, রাতে ‘না’ করলেন সাকিব

সাকিব আল হাসান

হঠাৎ করেই ইউটার্ন করলেন সাকিব আল হাসান। দিনভর গুঞ্জনের পর শনিবার বিকালে জানিয়েছিলেন, আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হতে মনোনয়ন ফরম তুলবেন তিনি। এমন কী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে জানানো হয় নিজ জেলা মাগুরা থেকে নির্বাচনে অংশ নিতে চান তিনি।

কিন্তু সেই সাকিবই রাতে সরে আসলেন সিদ্ধান্ত থেকে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক এবার বলছেন নির্বাচনে অংশ নেবেন না তিনি। গণমাধ্যমে স্পষ্ট বলেন, ‘আমি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি। নির্বাচন করব না।’

ইনজুরির কারণে জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই অলরাউন্ডার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নেওয়ার ব্যাপারে নিজের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে ফেললেন। কেন এই পরিবর্তন তা অবশ্য জানান নি সাকিব। এনিয়ে ক্ষমতাসীন দলের পক্ষ থেকেও কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এর আগে আওয়ামী লীগের উপ দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেছিলেন সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মর্তুজা রোববার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম তুলবেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/11/1541875475408.jpg

বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। এরমধ্যে ধানমণ্ডির কার্যালয় থেকে রোববার এই দুই তারকা ক্রিকেটারের মনোনয়ন ফরম কেনার কথা ছিল।

তবে নির্বাচনে অংশ নেওয়া নিয়ে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি এখনো গণমাধ্যমে মুখ খুলেন নি। গুঞ্জন আছে নিজ জেলা নড়াইল থেকে নির্বাচনে অংশ নেবেন তুমুল জনপ্রিয় এই ক্রিকেটার। বেশ কয়েক বছর ধরেই অবশ্য নিজ এলাকায় জনকল্যাণমূলক কাজে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন মাশরাফি। গড়ে তুলেছেন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। যার মাধ্যমে জনসেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

আগামী বছর আইসিসি বিশ্বকাপ ক্রিকেট শেষেই অবসর নেওয়ার কথা রয়েছে মাশরাফির। বলা হচ্ছে তার আগেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে যাচ্ছেন তিনি।

খেলা এর আরও খবর