Alexa

জিদানের দলে মেসি-নেইমার , নেই রোনালদো

জিদানের দলে মেসি-নেইমার , নেই রোনালদো

এক সময়ের প্রিয় ফুটবলার রোনালদোকেই দলে রাখলেন না জিদান!

দু'জনের বন্ধন কতোটা মজবুত তা সবারই জানা। জিনেদিন জিদান-ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, রিয়াল মাদ্রিদে তারা ছিলেন গুরু-শিষ্য। একসঙ্গে মিলে অনেক সাফল্যই এনে দিয়েছেন সান্টিয়াগাে বার্নাব্যুর ক্লাবটিকে। তার বোঝাপড়া ছিল দুর্দান্ত। আবার রিয়াল থেকে দু'জনের বিদায়টাও একই সময়ে! অথচ সেই তুরুপের তাস রোনালদোকেই নিজের পছন্দের দলে রাখলেন না জিদান।

১৯৯৮ বিশ্বকাপ মহাতারকা জিদান তার সেরা দল নির্বাচন করতে ভুলেই গেলেন ‘প্রিয়’ শিষ্যকে। তবে তার পছন্দের দলে আছেন লিওনেল মেসি। এমন কী নেইমারকেও জায়গা দিয়েছেন দলে। এক্ষেত্রে ফিফার সাবেক বর্ষসেরা রোনালদোকে দলে না রাখাটা বিস্ময়করই!

রিয়ালের সাবেক কোচ ফরাসি এই কিংবদন্তি তার সেরা দলে জায়গা দিলেন ১৭ ফুটবলারকে। সেখানে ফ্রান্স আর ব্রাজিলের ফুটবলারদের সংখ্যাই বেশি।

চীনের এক সংবাদমাধ্যমে নিজের স্বপ্নের দল নির্বাচন করতে গিয়ে অবশ্য হিমশিম খেতে হয় বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা এই তারকাটিকে। গোলরক্ষক হিসেবে নেন তারই জাতীয় দলের সাবেক সতীর্থ ফ্যাবিয়েন বার্থেজকে। আবার মিডফিল্ডে নিজের দলে নিজেকেই রেখেছেন জিদান।

কিংবদন্তি অনেক ফুটবলারই জায়গা পেয়েছেন জিদানের পছন্দের দলে। এরমধ্যে ব্রাজিল থেকে সাত ফুটবলারকে দলে নিয়েছেন। আছেন ক্রোয়েশিয়ার লুকা মডরিচও। এমন কী দলে জায়গা পেলেন ফ্রান্সের ক্লদ মাকলেলে। কিন্তু রোনালদোকে না রাখাটা বির্তকের জন্ম দিয়েছে।

জিদানের পছন্দের দল-

গোলরক্ষক: ফ্যাবিয়েন বার্থেজ (ফ্রান্স)।

রক্ষণভাগ: সেন্ট্রাল-ব্যাক কার্লহাইঞ্জ ফর্স্টে (জার্মান), কার্লোস মোজ়ার (চিলি), লরাঁ ব্লাঁ (ব্রাজিল) ও সার্জি রামোস (স্পেন)।

লেফট ব্যাক: পাওলো মালদিনি (ইতালি), রবের্তো কার্লোস (ব্রাজিল) ও মার্সেলো (ব্রাজিল)। রাইটব্যাক কাফু (ব্রাজিল) ও দানি আলভেস (ব্রাজিল)।

মাঝমাঠ: জিনেদিন জিদান (ফ্রান্স), আন্দ্রে ইনিয়েস্তা (স্পেন), ক্লদ মাকলেলে (ফ্রান্স), লুকা মডরিচ (ক্রোয়েশিয়া)

আক্রমণভাগ: রোনালদো (ব্রাজিল), নেইমার (ব্রাজিল) ও লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা)।

আপনার মতামত লিখুন :