ইসি স্বাধীন বলেই খালেদার মনোনয়ন বাতিল হয়েছে: নানক

এক সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীর কবির নানকসহ (মাঝে) অন্যরা / ছবি: বার্তা২৪

নির্বাচন কমিশন স্বাধীন বলেই দণ্ডিত খালেদা জিয়ার মনোনয়ন বাতিল হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

শনিবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিন এ মন্তব্য করেন।

নানক বলেন, ‘বিএনপির অনেকে নির্বাচন কমিশনে আপিল করে মনোনয়নের বৈধতা পেয়েছে। আর নির্বাচন কমিশন স্বাধীন বলেই খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারছেন না। তার মনোনয়ন বাতিল করেছে। নির্বাচন কমিশন কোনো চাপের মুখে নতি স্বীকার না করে স্বাধীনভাবে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপি সিনিয়র মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী নয়া পল্টনে বসে নির্বাচন নিয়ে মিথ্যাচার করেছে। জাতিকে বিভ্রান্ত করা চেষ্টা করছে।’

বিএনপির মনোনয়ন বাণিজ্য বেসামাল পর্যায়ে চলে গিয়েছে উল্লেখ করে নানক বলেন, ‘ঢাকা বা বাংলাদেশে নয় লন্ডনে গিয়ে পৌঁছেছে এ অবস্থা। কিছু সময় আগে টেলিভিশনে দেখলাম বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ চলছে।'

বিএনপির মতো লেজ গোবরের দলের কাছে জাতি ভাল কিছু আশা করতে পারে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

লন্ডনে বসে পলাতক দণ্ডিত আসামি তারেক রহমান নির্বাচন বানচালে ষড়ষন্ত্র করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন বানচাল করতে তারেক রহমান ব্যর্থ রাষ্ট্র পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই’র সঙ্গে বৈঠক করছে। তা বিভিন্ন বিদেশি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যে জাতি রক্ত দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করতে পারে সে জাতিকে কখনো দাবিয়ে রাখা যায় না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামী বছরে বাংলাদেশের আওয়ামী লীগ বিজয়ের পতাকা উড়াবে।’

তবে এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ২৪ জন বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন। এর মধ্যে ছয়জন ইতোমধ্যে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছেন বলে জানান আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল, সাংগঠনক সম্পাদক আফম বাহাউদ্দিন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক আব্দুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

রাজনীতি এর আরও খবর

//election count down