বগুড়ার ৭টি আসনে বিএনপির ৫ নতুন মুখ

ছবি: বার্তা২৪

একাদশ সংসদ নির্বাচনে বগুড়ার সাতটি আসনে বিএনপি থেকে মনোনীত প্রার্থীদের মধ্যে পাঁচজনই নতুন মুখ। এই পাঁচ জন এর আগে বগুড়ার কোনো আসনে এমপি প্রার্থী হননি। আর বাকি দুইজন ২০০১ সালের সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

আসন্ন সংসদ নির্বাচনে সারাদেশের মত বগুড়ার সাতটি আসনে দল থেকে একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়েছিল। ইসির যাচাই-বাছাই পর্বে সাতটি আসনে ১২জন প্রার্থী বৈধ হন। এর মধ্যে সর্বশেষ দলের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে সাত জনকে চূড়ান্তভাবে ঘোষণা করা হয়।
যাদেরকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হয়েছে তারা হলেন- বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনে সাবেক এমপি কাজী রফিকুল ইসলাম, বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ) আসনে ঐক্যফ্রন্টের মাহমুদুর রহমান মান্না, বগুড়া-৩ (আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া) আসনে সাবেক এমপি আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকার স্ত্রী মাসুদা মোমিন, বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনে মোশারফ হোসেন, বগুড়া-৫ (ধুনট-শেরপুর) আসনে সাবেক এমপি গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, বগুড়া-৬ (সদর) আসনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং বগুড়া-৭ (গাবতলী-শাজাহানপুর) আসনে মোরশেদ মিলটন।

এদিকে, চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণার পর বিভিন্ন আসনে নেতাকর্মীদের একাংশের ক্ষোভ অসন্তোষ থাকলেও প্রকাশ্যে এখনো কেউ মুখ খুলছে না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক নেতা বার্তা ২৪.কমকে বলেন, গত ১২ বছর যারা দলের জন্য কাজ করেছে তাদেরকে মূল্যায়ন করা হয়নি। যারা মাঠে ছিল না, জন বিচ্ছিন্ন ছিল এমন দুইজন প্রার্থীকে বগুড়া-১ এবং বগুড়া-৫ আসনে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এই দুই আসনে বিএনপিকে লড়তে হবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপির সঙ্গে। অপর পাঁচটি আসনের মধ্যে বিএনপির প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে চারটিতে জাতীয় পার্টি এবং একটি জাসদ মনোনীত প্রার্থী রয়েছে।

বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলামের সঙ্গে কথা হলে তিনি মনোনয়ন নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চান নি। তিনি বলেন, ‘আমাকেও বগুড়া-৪ আসনে প্রাথমিক মনোনয়ন দেয়া হয়েছিল, চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়া হয়েছে আরেক জনকে। দল যাকে ভাল মনে করেছে তাকেই দিয়েছে।’

নির্বাচন এর আরও খবর

//election count down