Alexa

বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ১২

বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ১২

ছবি: বার্তা২৪.কম

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার মহিপুরে বালুর ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয় পক্ষের অন্তত ১২ জন আহত হয়েছে।

সোমবার (১৪ জানুয়ারি) পুরান মহিপুর এলাকায় শেখ জামাল সেতুর নিচে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের সকলকে উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, শেখ জামাল সেতুর নিচে বালুর ব্যবসাকে কেন্দ্র করে বর্তমান ইউপি সদস্য আ. রব ও সাবেক ইউপি সদস্য সুলতান খান গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার কথা কাটাকাটি ও এক পর্যায়ে উভয় গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় উভয় পক্ষের হামলায় সাবেক ইউপি সদস্য সুলতান খান (৫৫), ইউপি সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আ. রব (৬৬), নজরুল ইসলাম, সেরজুল ইসলাম, হালিম শিকদার (৫৫), হারুন (৪৫), সালাম শিকদার (৪৫), মেনাজ (২৩), রিয়াজ, রিয়াদুল, জাহিদ (১৮), বাবু (১৯) আহত হন।

এদের মধ্যে গুরুতর আহত হারুণকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং বাকিদের কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ইউপি সদস্য আ. রব জানান, সরকারি জমিতে বালু রেখে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করে আসছেন তিনি। আজ সুলতান খান চাঁদার দাবিতে সংঘবদ্ধ হয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়।

অপরদিকে সুলতান খান জানান, বালু রাখা নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হলে আ. রব মেম্বারের লোকজন তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মাহাবুবুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোনো পক্ষই অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :