শিক্ষার্থীদের দিয়ে ধানের চারা উত্তোলন করালেন শিক্ষক

শিক্ষার্থীদের দিয়ে ধানের চারা উত্তোলন করালেন শিক্ষক। ছবি: বার্তা২৪.কম

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, নড়াইল, বার্তা২৪.কম

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দিয়ে শিক্ষকের জমির ইরি ধানের চারা উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর এই অভিযোগ উঠেছে স্কুলশিক্ষক রতন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে। তিনি নড়াইল সদর উপজেলার মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। শিক্ষার্থীরা ওই বিদ্যালয়ের নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ধানের চারা উত্তোলন করার জন্য মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম ও ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নানা রকম প্রলোভন দেখিয়ে নিজের বীজ তলায় নিয়ে যান শিক্ষক রতন বিশ্বাস। ক্লাস ফাঁকি দিয়ে সারাদিন শিক্ষার্থীদের দিয়ে এ কাজ করান তিনি।

অভিভাবকদের অভিযোগ, এলাকায় ইরি ধানের চারা তুলতে বেশ টাকা খরচ হয়। ওই টাকা বাঁচাতেই শিক্ষক রতন বিশ্বাস শিক্ষার্থীদের দিয়ে নিজের জমির চারা উত্তোলন করাচ্ছেন। তিনি শিক্ষক হওয়ার কারণে পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলতে সাহস পায় না। যে কারণে শিক্ষক রতন বিশ্বাস গত কয়েকদিন যাবৎ ৯ম ও ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের দিয়ে চারা উঠানোর কাজে বাধ্য করাচ্ছেন।

অভিযুক্ত শিক্ষক রতন বিশ্বাস বলেন, ‘আমার জমির ইরি ধানের চারা অন্যত্র বিক্রি করে দিয়েছি। ধানের চারা উত্তোলনের বিষয়টি ছাত্ররাই বলতে পারবে। এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না।’

মুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক বিশ্বাস বলেন, ‘বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ নিচ্ছি। এটি সত্য হলে স্কুল পরিচালনা কমিটির কাছে উপস্থাপন করা হবে।’

নড়াইল জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহিদুর রহমান জানান, শিক্ষার্থীদের দিয়ে নিজের ক্ষেত-খামারের কাজ করানোর বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে। বিষয়টি সত্য প্রমাণিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেলা এর আরও খবর