৫ টাকার গোলাপ আজ ৫০ টাকা!

ফুল মার্কেট, ছবি - বার্তা২৪.কম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

খুলনা: ফুল মানেই সৌন্দর্য ও ভালোবাসার প্রতীক। ফুল ভালোবাসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যায়না। ভালোবাসা, ভালোলাগা নিবেদনের অন্যতম প্রধান মাধ্যম ফুল। ‘বিশ্ব ভালোবাসা দিবস’ বা ‘ভ্যালেন্টাইন ডে’ তে বিশ্বের কোটি কোটি প্রেমিক যুগলের কাছে তাদের প্র‌িয় মানুষটির জন্য ফুলের বিকল্প নেই।

রঙ-বেরঙের ফুলের উপহারে প্র‌িয়জনের সাথে দিনটি কাটায় সবাই। তাইতো খুলনার ফুল মার্কেটে ফুল কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন সকল বয়সী ক্রেতারা।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ১ টার পরেও ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে ফুরফুরে মেজাজে খুলনার তরুণ-তরুণীরা ছুটে এসেছেন ফুল মার্কেটে। খুলনা মহানগরীর সবচেয়ে বড় ফুলের মার্কেট এটি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/14/1550103847649.jpg

এখানে ফুলের দোকান আছে ১৫টি। খুলনার ফুল মার্কেটে এবারের ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে লাল গোলাপ। এছাড়াও রজনীগন্ধা, গ্যাডিওলাস, জারবেরা, গাঁদা, অর্কিড, জবেরা, ভূট্টা, ইউলেস্টার ও জিপসিও বিক্রি হচ্ছে এখানে। এসব ফুল যশোর, মেহেরপুর, ঝিনাইদহ, ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আমদানি হয়ে খুলনাতে আসে।

তবে  ফুল ক্র‌েতারা অভিযোগ করেন, অন্য বছরগুলো থেকে এবার ফুলের দাম অনেক বেশি। অন্যদিকে ফুল ব্যবসায়ীরা জানান, চাহিদা অনুযায়ী ফুলের উৎপাদন ও যোগান না থাকায় ফুলের দাম বাড়ছে।

ফুলের দাম বেশী থাকলেও ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে উপচে পড়া ভিড় দেখা যায় এ ফুল মার্কেটে। এবার প্রতিটি ফুলের দাম চড়া থাকলেও কেনাবেচায় ঘাটতি পড়েনি একটুও। ভালোবাসার মানুষকে ফুল উপহার দিতে বাধ্য হয়েই বেশি দাম দিয়েই কিনতে হচ্ছে ফুল।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/14/1550103871635.jpg

ফুল কিনতে আসা কলেজ শিক্ষার্থী অভিজিৎ সরকার বার্তা২৪.কম কে  বলেন, ‘প্রতিটি গোলাপ সব সময় ৫ টাকায় বিক্র‌ি হয়, বিশেষ দিবস আসলে আগে গোলাপ ফুলের দাম বেড়ে ২০ থেকে ৩০ টাকা হতো। কিন্তু এবার এক ঝটকায় গোলাপ ফুলের দাম ৫ থেকে ৫০ ছুঁয়েছে। সকালে ফুলের দাম আরো বাড়তে পারে’।

এছাড়াও রজনীগন্ধা, জারবেরা, গ্লোসি, অর্কিড, গাঁদা, বেলী ফুলের মালার দামও অনেকগুণে বেশি নিচ্ছে ফুল ব্যবসায়ীরা।

ফুল মার্কেটের বিসমিল্লাহ ফুল ঘরের ব্যবসায়ী রিপন ইসলাম বার্তা২৪.কম কে বলেন, ‘চাহিদা অনুযায়ী ফুল পাচ্ছিনা আমরা। আমার এখানে ৩ হাজার গোলাপের অর্ডার ছিলো, পেয়েছি ৩'শ গোলাপ। তাছাড়া যেখান থেকে ফুল আনা হয়, সেখানেও দাম  অনেক বেশী। এসব কারণে ফুলের দাম বাড়ছে’। 

জারবেরা ফুল কর্ণার দোকানের মালিক জাহাঙ্গীর হোসেন বার্তা২৪.কম কে বলেন, ‘শেষ মুহূর্তে বেচাকেনা ভালো হচ্ছে আমাদের। কিন্তু আমরা পর্যাপ্ত ফুল পাচ্ছি না’।

জেলা এর আরও খবর