Alexa

রাবিতে ‘ন্যাচুরা-প্রথম আলো জাতীয় বিতর্ক উৎসব’ শুরু ১৫ ফেব্রুয়ারি

রাবিতে ‘ন্যাচুরা-প্রথম আলো জাতীয় বিতর্ক উৎসব’ শুরু ১৫ ফেব্রুয়ারি

ছবি: বার্তা২৪

‘শুদ্ধ চয়নে আলোকিত হোক যুক্তির মিছিল’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) শুরু হতে যাচ্ছে নয় দিনব্যাপী ‘ন্যাচুরা-প্রথম আলো জাতীয় বিতর্ক উৎসব’-২০১৯। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেজ স্টাডিজ ফ্যাকাল্টি ডিবেটিং ফোরামের (বিএফডিএফ) আয়োজনে আগামী শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) এ উৎসব শুরু হবে। উৎসব চলবে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র ভবনে বিএফডিএফ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির প্রধান নির্বাহী সদস্য আবু ইউসুফ এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ২৮ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে এ উৎসবের উদ্বোধন করেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক। এছাড়া আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি একই স্থানে এই বিতর্ক উৎসবের সমাপনী পর্বটি অনুষ্ঠিত হবে। এ সময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে হাসান আজিজুল হক ও রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান উপস্থিত থাকবেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এই বিতর্ক উৎসবটি আন্তঃস্কুল, আন্তঃকলেজ ও আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় এই তিনটি ভাগে প্রতিযোগিতায় অংশ নিবে। উৎসবের প্রথম পর্বে অনুষ্ঠিত হবে আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতা, দ্বিতীয় পর্বে আন্তঃকলেজ প্রতিযোগিতা ও তৃতীয় পর্বে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এ প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩২টি দল অংশগ্রহণ করবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

প্রতিযোগিতায় টাইটেল পার্টনার হিসেবে থাকছে ন্যাচুরা ব্রান্ড এবং প্রথম আলো। এছাড়া প্রতিযোগিতায় এডুকেশন পার্টনার হিসেবে থাকছে এবেলা স্টুডেন্ট কেয়ার এবং আইটি পার্টনার হিসেবে থাকছে জিপ নেট ও মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকছে যমুনা টেলিভিশন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন জ্যেষ্ঠ নির্বাহী সদস্য ওয়ালিদা রাশা, হাবিবুর রহমান ও শাওন কাদির প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ‘জয়েন বিএফডিএফ, এক্সপ্রেস ইউরসেলফ্’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০০৮ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে সংগঠনটি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে প্রকৃত জ্ঞান চর্চা ও মেধার বিকাশের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের যুক্তিবাদী ও পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় এবং জাতীয় পর্যায়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আসছে সংগঠনটি।

আপনার মতামত লিখুন :