Alexa

'বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুর জীবন করো রঙিন'

'বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুর জীবন করো রঙিন'

শিশুর তুলিতে বঙ্গবন্ধু, ছবি: বার্তা২৪.কম

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের জন্মদিন শিশুদের জন্য নিয়ে এসেছে মহান বার্তা: বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুর জীবন করো রঙিন।

বাঙালি জাতির রাজনৈতিক মুক্তিদূত, বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোরদের অসম্ভব ভালোবাসতেন। সংগ্রামী এই নেতা ছিলেন শিশুর মতো কোমল হৃদয়ের অধিকার। তাঁর বুক ভরা ছিলো সমুদ্র-সমান ভালোবাসা।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনটি তাই একদিকে যেমন বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে মহত্তম দিন, অন্যদিকে শিশু-কিশোরদের আনন্দের দিন। প্রিয়নেতার জন্মস্মৃতি নিয়ে বাংলাদেশের শিশু-কিশোররা দিনটি পালন করে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে শিশু-কিশোরদের জন্য থাকে বিশেষ আয়োজন। শিশুরা চিত্রাঙ্কনের মাধ্যমে অঙ্কন করে স্বপ্নের মহাপুরুষের অবয়ব। নিজের আবেগের রঙ, তুলি, কল্পনায় মূর্ত করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে দেশব্যাপী শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা হচ্ছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের প্রধান প্রধান শহর, বন্দর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চলছে শিশুদের রঙের খেলা। সুদূর মফস্বলের শিশুরাও মেতেছে রঙের আবেশে বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্যে। তাদের কাঁচা হাতে প্রস্ফূটিত হচ্ছে মহানায়কের প্রতিচ্ছবি।

কিশোরগঞ্জের ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে আয়োজন করেছে শিশুদের চিত্রাঙ্কনের বিশাল অনুষ্ঠান। শত শত শিশু-কিশোর মনের মাধুরী মিশিয়ে এঁকেছে জাতির পিতার অম্লান মুখচ্ছবি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান বদরুল হুদা সোহেল বার্তা২৪.কমের জন্য তুলে পাঠিয়েছেন এক নিমগ্ন শিশুর তুলিতে রূপায়িত বঙ্গবন্ধুর ছবিটি।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসেও আয়োজিত হয়েছে শিশুদের চিত্রাঙ্কনের বিরাট আয়োজন। রাজনীতি বিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক তাসলিমা আক্তার নিজের ছেলেকে নিয়ে গেছেন সেখানে। শত শত শিশুর তুলিতে বঙ্গবন্ধুর অসংখ্য অবয়বে সেখানে সৃষ্টি হয়েছে অনন্য আলোকময়তা।

'বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন, শিশুর জীবন করো রঙিন' কথাটি সত্যিই অর্থবহ হয়েছে ১৭ মার্চ। যে নেতা তাঁর জাতির মুক্তি ও কল্যাণে পুরোটা জীবন বিলিয়ে দিয়েছেন, তাঁর জন্মদিনটি শিশুদের জন্য কল্যাণের বার্তা বহণ করেই আসবে। শিশুদের জন্য নিরাপদ, আনন্দময়, বাসযোগ্য বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় ঘোষিত হবেই মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে।

 

 

আপনার মতামত লিখুন :