Alexa

তামাকজাত দ্রব্যের উপর কর বৃদ্ধির দাবিতে মানববন্ধন

তামাকজাত দ্রব্যের উপর কর বৃদ্ধির দাবিতে মানববন্ধন

তামাকের কর বৃদ্ধির দাবিতে মানববন্ধন ছবি: বার্তা২৪

তামাকজাত দ্রব্যের উপর কর বৃদ্ধির দাবিতে খুলনায় মানববন্ধন করা হয়েছে।

রোববার (১৭ মার্চ) দুপুরে খুলনা প্রেস ক্লাবের সামনে তামাক বিরোধী সংগঠন এইড ফাউন্ডেশন, সিয়াম, রুপসা, দুস্বর বাংলাদেশ একত্রিত হয়ে তামাকবিরোধী মানববন্ধন পালন করে।

অনুষ্ঠানে সিয়ামের নির্বাহী পরিচালক এড. মাছুম বিল্লাহর সঞ্চালনায় বক্তারা বলেন, ‘জনস্বাস্থ্য উন্নয়নকে প্রাধান্য দিয়ে বর্তমান সরকার তামাক নিয়ন্ত্রণে আন্তরিকতার সাথে কিছু দৃষ্টান্তমূলক উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন যা সত্যিই প্রশংসার দাবীদার। বিশেষ করে অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃক সকল ধরনের তামাকজাত দ্রব্যের উপর ১% সারচার্জ আরোপ এবং পরবর্তীতে সারচার্জ ব্যবস্থাপনা নীতি প্রণয়নও উল্লেখযোগ্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তামাক নিয়ন্ত্রণকে বিশেষভাবে গুরুত্ব দিয়ে আগামী ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে তামাকের ব্যবহার সম্পূর্ণ নির্মূল করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। এই লক্ষ্য অর্জনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তামাকের উপর বর্তমান শুল্ক-কাঠামো সহজ করে একটি শক্তিশালী তামাক শুল্ক-নীতি প্রণয়নের কথা বলেছেন। যা দেশে তামাকজাত পণ্যের ক্রয় ক্ষমতা হ্রাস এবং রাজস্ব বৃদ্ধির সাথে সাথে জনস্বাস্থ্য, পরিবেশ সর্বোপরি রাষ্ট্রের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ২০১৪ সালের তথ্য তুলে ধরে বক্তারা আরও বলেন, ‘পৃথিবীর যেসব দেশে তামাকের দাম অত্যন্ত সস্তা বাংলাদেশ তার মধ্যে অন্যতম। তামাকের উচ্চমূল্য জনগণকে তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহারে অধিক নিরুৎসাহিত করে। তামাকের শুল্ক-কাঠামো অত্যন্ত জটিল থাকায় দেশে তামাকের ব্যবহার ও ক্রয়-ক্ষমতা হ্রাসে কার্যকর ভূমিকা রাখা সম্ভব হচ্ছে না। আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা অনুসারে যেসকল দেশ তামাকজাত দ্রব্যের উপর উচ্চহারে করারোপ করেছে সেসকল দেশে তামাকের ব্যবহার উল্লেখযোগ্য হারে  হ্রাস পেয়েছে। সারা বিশ্বে তামাকের মূল্য বৃদ্ধি এবং উচ্চ হারে করারোপ তামাক নিয়ন্ত্রণে কার্যকর কৌশল হিসেবে বিবেচিত হলেও বাংলাদেশে তামাকের কর নির্ধারণে কোন সুনির্দিষ্ট নীতি নেই। সুনির্দিষ্ট কর নীতির অভাব তামাকজাত দ্রব্যের উপর সঠিক হারে করারোপ প্রক্রিয়াকে জটিল ও দীর্ঘ মেয়াদী করছে।’

এমতাবস্থায় বাংলাদেশে তামাকজাত দ্রব্যের উপর উচ্চহারে করারোপ সহ আইন বাস্তবায়নে আরও পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি। সার্বিক দিক বিবেচনায় জনস্বাস্থ্য উন্নয়নে দেশে একটি তামাক কর নীতি প্রণয়নের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের সাথে সাথে আগামী বাজেটে তামাকজাত দ্রব্যের উপর উচ্চহারে করারোপ করার জন্য বক্তারা অনুরোধ করেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, রূপসা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক হিরন্ময় মন্ডল, দুস্বর বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মোয়াম্মের আবদুল্লাহ, এস এম জি নেওয়াজ, ইসমত আরা হিরা সহ বিভিন্ন ছাত্র ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

আপনার মতামত লিখুন :