Barta24

সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

English

যানজট কমাতে বাংলা ট্র্যাকের ‘ইয়েস পার্কিং’ অ্যাপ

যানজট কমাতে বাংলা ট্র্যাকের ‘ইয়েস পার্কিং’ অ্যাপ
ছবি: সংগৃহীত
টেক ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানী ঢাকায় অননুমোদিত পার্কিংয়ের কারণে সৃষ্ট যানজট কমাতে ‘ইয়েস পার্কিং’ নামের নতুন একটি অ্যাপ প্ল্যাটফর্ম চালু করেছে বাংলা ট্র্যাক গ্রুপ। এই অ্যাপ ব্যবহার করে বিভিন্ন কোম্পানি এবং ব্যক্তি ঘণ্টা ভিত্তিতে পার্কিং স্পেস ভাড়া নিতে রেজিস্টার করতে পারবেন।

ইয়েস পার্কিং মূলত, ডিজিটাল পার্কিং প্লেস হিসেবে সেবা দেবে। যার মাধ্যমে মানুষকে গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য উন্মুক্ত স্থান খুঁজে পেতে এবং অন্যদিকে মালিকরা তাদের পার্কিং স্পেস ভাড়া দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

এই প্ল্যাটফর্মটি নগরবাসীর জন্য ডিজিটাল পদ্ধতিতে পার্কিং স্পেস শনাক্ত ও রিজার্ভ করতে সহায়তা করবে। ফলে রাজধানীতে পিক আওয়ারে যানজটের সংখ্যা অনেকাংশে কমে যাবে।

এছাড়া যদি কোনো পার্কিং স্পেস খালি বা অব্যবহৃত থাকে তাহলে এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে মালিকরা সেটি ভাড়া দিতে পারবেন।

বাংলা ট্র্যাক গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আমরা মানুষের প্রয়োজন বিবেচনা করি এবং সচেতনতার সঙ্গে তাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো (নেভিগেশন ও পার্কিং স্পেস) সমাধান করার পরিকল্পনা করি।’

ইয়েস পার্কিং অ্যাপটি প্লে স্টোর ও অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে। আর এই উদ্ভাবনী কাজের জন্য বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ফরেস্টারের তালিকাভুক্ত হয়েছে বাংলা ট্র্যাক।

বাংলা ট্র্যাক গ্রুপ মূলত বাংলাদেশে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ এবং আইসিটি খাতের পণ্য ও সেবার জন্য কাজ করে থাকে।

আপনার মতামত লিখুন :

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখল হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখল হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ের হ্যান্ডসেট ওয়াই৯ প্রাইম, ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রথম অটো পপআপ ক্যামেরার মোবাইল ফোন ওয়াই৯ প্রাইম এখন বাংলাদেশের বাজারে।

রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি। এতে থাকছে হাই-পারফরমেন্সের চিপসেট, ইএমইউআই ৯.০ অপারেটিং সিস্টেম, ট্রিপল এআই ক্যামেরা ফিচার, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

মধ্যম বাজেটের এই মোবাইল ফোনটিতে আরও থাকছে ৬.৫৯ ইঞ্চি বিশিষ্ট ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। নো হোল, নো নচ, নন-ডিউড্রপ ডিজাইনের ফোনটির ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লের উপরে ব্যবহার করা হয়েছে ছোট ব্যাজেল। এতে কিরিন ৭১০এফ প্রসেসরের সঙ্গে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে, যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে ফোনের স্টোরেজ নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকবে না গ্রাহকদের।

হুয়াওয়ের ওয়াই৯ প্রাইম হ্যান্ডসেটটির পেছনে থাকছে তিনটি ক্যামেরা। ১৬, ৮ ও ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরার জন্য ফোনটিতে ছবি পাওয়া যাবে নিখুঁত ও স্পষ্ট। ১৬ মেগাপিক্সেলের পপআপ ক্যামেরাটি ব্যবহারকারীদের ফুল ডিসপ্লে সুবিধা যেখানে কোনো নচ বা হোল থাকবে না।

পপআপ সেলফি ক্যামেরাটি ১৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বাহ্যিক চাপ সহ্য করতে পারবে। এক লাখবারের চেয়ে বেশি ওঠানামা করবে এর পপআপ ক্যামেরা। ৪ হাজার মিলি অ্যাম্পায়ার ব্যাটারি থাকায় ব্যবহারকারীরা একবার চার্জে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন।

অল্পসময়ে চার্জের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ-সি চার্জার। স্যাফায়ার ব্লু, অ্যামেরালড গ্রীন ও মিডনাইট ব্ল্যাক আকর্ষণীয় এই তিনটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।

প্রিমিয়াম ফিচারের এই ফোনটি পাওয়া যাবে ২৩ হাজার ৯৯৯ টাকায়।

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখলো হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখলো হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ে পপআপ ক্যামেরার ফোন ওয়াই নাইন প্রাইম

হুয়াওয়ের প্রথম অটো পপআপ ক্যামেরা ফোন এখন বাংলাদেশে বাজারে। প্রথমবারের মতো সর্বশেষ প্রযুক্তির এই অটো পপআপ ক্যামেরার ফোন ওয়াই নাইন প্রাইম ২০১৯ নিয়ে এসেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে।

রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।ফোনটিতে থাকছে হাই-পারফরমেন্সের চিপসেট, ইএমইউআই ৯.০ অপারেটিং সিস্টেম, ট্রিপল এআই ক্যামেরা ফিচার, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

মধ্যম বাজেটের এই ফোনটিতে আরও থাকছে  ৬.৫৯ ইঞ্চি বিশিষ্ট ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। নো হোল, নো নচ, নন-ডিউড্রপ ডিজাইনের ফোনটির ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লের উপরে ব্যবহার করা হয়েছে ছোট ব্যাজেল। এতে কিরিন ৭১০এফ প্রসেসরের সাথে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে। যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে ফোনের স্টোরেজ নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকবে না গ্রাহকদের। হুয়াওয়ের ওয়াই নাইন প্রাইম ২০১৯ হ্যান্ডসেটটির পিছনে থাকছে তিনটি ক্যামেরা। ১৬, ৮ ও ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরার জন্য ফোনটিতে ছবি পাওয়া যাবে নিখুঁত ও স্পষ্ট। ১৬ মেগাপিক্সেলের পপ আপ ক্যামেরাটি ব্যবহারকারীদের ফুল ডিসপ্লে সুবিধা যেখানে কোন নচ বা হোল থাকবে না।

পপ আপ সেলফি ক্যামেরাটি ১৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বাহ্যিক চাপ সহ্য করতে পারবে। এক লাখ বারের চেয়ে বেশি উঠা নামা করবে এর পপ আপ ক্যামেরা। ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পায়ার ব্যাটারি থাকায় ব্যবহারকারীরা একবার চার্জে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন।

অল্পসময়ে চার্জের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ-সি চার্জার। স্যাফায়ার ব্লু, অ্যামেরালড গ্রীন ও মিডনাইট ব্ল্যাক আকর্ষণীয় এই তিনটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।

প্রিমিয়াম ফিচারের এই ফোনটি পাওয়া যাবে ২৩ হাজার ৯৯৯ টাকায়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র