Alexa

জলকেলিতে মেতেছে কক্সবাজারের রাখাইন সম্প্রদায়

জলকেলিতে মেতেছে কক্সবাজারের রাখাইন সম্প্রদায়

জলকেলি উৎসব / ছবি: বার্তা২৪

মুহিববুল্লাহ মুহিব, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, কক্সবাজার, বার্তা২৪.কম

বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে কক্সবাজার শহরের পল্লীগুলোতে রাখাইন নববর্ষ পালন করছে এ সম্প্রদায়ের মানুষ। পুরনো বছর ১৩৮০ রাখাইন বর্ষকে বিদায় জানিয়ে তারা ১৩৮১ বর্ষকে বরণ করছে। এ উপলক্ষে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা প্রতিবছর তিন দিনব্যাপী সাংগ্রেং পোয়ে (মৈত্রিময় জলকেলি) উৎসব পালন করে আসছে। এতে নতুন রঙে সেজে নাচ গান আর আনন্দ-উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠে তরুণ-তরুণীরা। 

এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার (১৭ এপ্রিল) বিকেলে শহরের ১২টি কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে জলকেলি উৎসব। এ উৎসবকে ঘিরে রাখাইনদের পাশাপাশি আনন্দ-উল্লাসে মেতেছে পর্যটকরাও।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555502314009.jpg

রাখাইন সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দরা জানান, বুধবার থেকে থেকে আগামী শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) পর্যন্ত জাকঝমকভাবে অনুষ্ঠিত হবে জলকেলি উৎসব। নববর্ষে রাখাইন প্রবীণ ব্যক্তিরা উপবাসও করে থাকেন। এ সময় প্রাণী হত্যা, মিথ্যা বলাসহ কমপক্ষে আটটি দুষ্কর্ম থেকে দূরে থাকতে হয়।

শহরছাড়াও মহেশখালী, টেকনাফ, সদর, হ্নীলা, চৌধুরী পাড়া, রামু, পানিরছড়া, হারবাং, চকরিয়ার মানিক পুরসহ রাখাইন অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে সপ্তাহ জুড়ে নববর্ষ পালনে নানা অনুষ্ঠান পালিত হবে। ইতোমধ্যে শহরের টেকপাড়া, হাঙর পাড়া, বার্মিজ স্কুল এলাকা, চাউল বাজার, পূর্ব-পশ্চিম মাছ বাজার, ক্যাং পাড়া ও বৈদ্যঘোনাস্থ থংরো পাড়ায় তৈরি করা হচ্ছে জলকেলির ২০টি নান্দিক প্যান্ডেল। রঙিন ফুল আর নানা কারুকার্যে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে প্যান্ডেলের চারপাশ।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555502331625.jpg

রাখাইন শিক্ষার্থীরা বলেন, আদিকাল থেকে রাখাইন নববর্ষ উপলক্ষে সামাজিকভাবে সাংগ্রেং পোয়ে উৎসব পালন হয়ে আসছে। এবারও ব্যতিক্রম ঘটবে না। আনন্দ-উল্লাসে নতুন বছরকে বরণ করে নেব আমরা। আমরা একে অপরের গায়ে পানি ছিটানোর মধ্য দিয়ে পুরনো দিনের সব ব্যথা, বেদনা, হিংসা বিদ্বেষ ভুলে নতুনভাবে এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখি। এটি আমাদের কাছে খুবই পবিত্র।

চট্টগ্রাম পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের ইন্সট্রাক্টর উ থুয়েন বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘সাংগ্রাই পোয়ে বা জলকেলি রাখাইনদের সামাজিক উৎসব। বুদ্ধের মূর্তিকে স্নান করানোর মাধ্যমে সামাজিক এ উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। ১৯ এপ্রিল এই উৎসব শেষ হবে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555502357461.jpg

রাখাইন সম্প্রদায়ের নেতা ক্যাতিন অং বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আদিকাল থেকে রাখাইন নববর্ষ উপলক্ষে সামাজিকভাবে সাংগ্রাই পোয়ে উৎসব পালন হয়ে আসছে। এবারও ব্যতিক্রম ঘটবে না। আনন্দ-উল্লাসে নতুন বছরকে বরণ করে নেব আমরা। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের যে উন্নয়ন চলছে আমরা তারও অগ্রতি প্রত্যাশা করছি।’

কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘রাখাইনদের জলকেলি উৎসব উপলক্ষে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পুলিশ-র‌্যাবের পাশাপাশি গোয়েন্দা নজরদারিও বাড়ানো হয়েছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555502384377.jpg

জেলা এর আরও খবর