Alexa

মুজিবনগর সরকারের উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করছেন শেখ হাসিনা: আমু

মুজিবনগর সরকারের উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন করছেন শেখ হাসিনা: আমু

ছবি: বার্তা২৪

ডিস্টিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

মেহেরপুর: আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু বলেছেন, মুজিবনগরে প্রথম সরকার যে উদ্দেশ্যে নিয়ে শপথ নিয়েছিল তা বাস্তবায়নে কাজ করছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা। ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যাবে, এ দেশে যা কিছু অর্জিত হয়েছে, সবই বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে, আওয়ামী লীগের আমলে। আর এসেছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরিচালিত আওয়ামী লীগের মাধ্যমে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে মেহেরপুরের মুজিবনগরের আম্রকাননে মুজিবনগর দিবসের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান খুনি। তার নেতৃত্বেই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করা শুরু হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা কোনো গ্রামের উপর দাঁড়িয়ে কারো ঘোষণার উপরে আসে নাই। এই স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে জাতির পিতার নেতৃত্বে, দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555505353198.jpg

বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণার মধ্য দিয়ে মুজিবনগরে সরকারপ্রধানদের শপথ হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তাদের অনেকেই বলে, জিয়াউর রহমান মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। যদি মুক্তিযোদ্ধা থাকতেন তাহলে তারা ১৭ এপ্রিলের প্রথম সরকারকে মেনে নিতেন। যারা এ সরকারকে বিশ্বাস করে না তারা অবশ্যই স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিশ্বাস করে না।

বিএনপি রাজাকারদের ক্ষমা করেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ১৯৭৫ -এ বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান ক্ষমতা দখল করেন। প্রথমে তিনি দালাল আইন বাতিল করে সাড়ে ১১ হাজার কুখ্যাত খুনি রাজাকার-যুদ্ধাপরাধীকে মুক্তি দেন। স্বাধীনতা বিরোধী কুখ্যাত রাজাকারের দল হিসেবে জায়ায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ ছিল। কিন্তু তিনি তাদের রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555505338827.jpg

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, বিএনপি-জামায়াত একাত্তরের ১৭ এপ্রিল শপথের সময়ও ষড়যন্ত্র করেছিল। মোশতাক আহমেদ প্রথম সরকারের মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেও তিনি জাতির জনকের সাথে বেঈমানি করলেন। পাকিস্তানী ও স্বাধীনতা বিরোধীদের সাথে আঁতাত করে তিনি পাকিস্তানকে টিকিয়ে রাখতে চেয়েছিলেন।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ স্বপন, মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকন, মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর, চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগর টগর, মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রসুল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইলাম ও মুজিবনগর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম প্রমুখ।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/17/1555517111216.jpg

মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রী নেতা এসএম কামাল।

জেলা এর আরও খবর