Barta24

শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

English

ব্রাজিলের কোপা দলে চমক

ব্রাজিলের কোপা দলে চমক
ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা দলে নেই মার্সেলো
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

১২ বছর পর ফের কোপা আমেরিকা ট্রফি জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে আছে ব্রাজিল। নিজ দেশে অনুষ্ঠেয় লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্টত্বের লড়াই এবার বাজিমাত করতে চায় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। সেই লড়াইয়ের আগে দল ঘোষণায় চমক রেখেছেন কোচ তিনি।

তার ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দলে নেই রিয়াল মাদ্রিদের সেনসেশন ভিনিসিউস জুনিয়র। বাদ দিয়েছেন সান্টিয়াগো বার্নাব্যুর ক্লাবে খেলা আরেক তারকা মার্সেলোকে। রক্ষণভাগের এই ফুটবলারকে বাইরে রেখেই চূড়ান্ত দল গড়েছেন কোচ তিতে। জায়গা হয়নি লিভারপুলের ফুটবলার ফাবিয়ানোর।

তবে দলে আছেন নেইমারসহ অন্য তারকারাও। আক্রমণভাগে ফিরমিনোর সঙ্গে দেখা যাবে এভারটন ও জেসুসকেও। মাঝমাঠে কুতিনহো, ফার্নান্দিনহোর সঙ্গে এসি মিলানের হয়ে মাঠ মাতানো পাকুয়েতাও আছেন। আর গোলপোষ্টের নীচে আস্থার প্রতীক লিভারপুলের হয়ে মৌসুম জুড়ে দুর্দান্ত খেলা অ্যালিসন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/17/1558112006242.jpg

১৪ জুন কোপা আমেরিকার উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ বলিভিয়া। গ্রুপের পরের ম্যাচে লড়বে ভেনেজুয়েলার সঙ্গে। ২২ জুন পেরুর মুখোমুখি হবে ব্রাজিল।

আসল লড়াইয়ের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে কাতার ও হন্ডুরাসের সঙ্গে লড়বে ব্রাজিল ফুটবল দল।

ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা দল

গোলরক্ষক: অ্যালিসন (লিভারপুল), এডারসন (ম্যানসিটি), ক্যাসিও (করিন্থিয়ান্স)।
ডিফেন্ডার: সিলভা (পিএসজি), মার্কুইনোস (পিএসজি), এডার মিলিতো (পোর্তো), মিরান্ডা (ইন্টার মিলান), আলভেস (পিএসজি), ফ্যাগনার (করিন্থিয়ান্স), ফিলিপে লুইস (অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ), আলেক্স সান্দ্রো (জুভেন্টাস)।
মিডফিল্ডার: ক্যাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), কুতিনহো (বার্সেলোনা), আর্থার মেলো (বার্সেলোনা), এলান (নাপোলি), পাকুয়েতা (এসি মিলান), ফার্নান্দিনহো (ম্যানসিটি)।
ফরোয়ার্ড: নেইমার (পিএসজি), ফিরমিনো (লিভারপুল), এভারটন (গ্রেমিও), জেসুস (ম্যান সিটি), রিচার্লিসন (এভারটন) ও ডেভিড নেরেস (আয়াক্স)।

আপনার মতামত লিখুন :

অ্যান্টিগা টেস্টের দ্বিতীয় দিন ইশান্ত শর্মার

অ্যান্টিগা টেস্টের দ্বিতীয় দিন ইশান্ত শর্মার
বল হাতে ইশান্তের দাপটে লিডের পথে ভারত

ব্যাট হাতে ৬১ বলে ১৯ রান। অষ্টম উইকেট জুটিতে রবিন্দু জাদেজার সঙ্গে ৬০ রান যোগ। তারপর বল হাতে দুর্দান্ত স্পেল। ৪২ রানে শিকার ৫ উইকেট। যার দুটো আবার কট এন্ড বোল্ড! শেষ স্পেলে ৮ রানে ৩ উইকেট তুলে নেয়া। অ্যান্টিগা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের পুরোটাই নিজের করে নিলেন ইশান্ত শর্মা। ম্যাচেও এগিয়ে গেলো ভারত অনেক খানি। ২৯৭ রানে থামে ভারতের প্রথম ইনিংস। জবাব দিতে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজ দ্বিতীয় দিন শেষ করলো ৮ উইকেটে ১৮৯ রানে।

দ্বিতীয়দিন শেষে ভারত এগিয়ে ছিলো ১০৮ রানে। শেষের দুই উইকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এই ব্যবধান খুব বেশি কমিয়ে আনবে- তেমন আস্থা খুব বেশি নেই।

অ্যান্টিগায় দ্বিতীয়দিনের সকালটা অবশ্য ভারতের ভালো শুরু হয়নি। আগের দিনের অপরাজিত ব্যাটসম্যান রিসাভ পান্থ শুরুতেই উইকেট হারান। অফস্ট্যাম্পের বাইরের বলে ড্রাইভ করতে গিয়ে খেমার রোচের চতুর্থ শিকার হয়ে স্লিপে ক্যাচ তুলে ফিরেন পান্থ। অষ্টম উইকেট জুটিতে ইশান্ত শর্মাকে নিয়ে রবিন্দু জাদেজা ভালো প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। একপাশ আঁকড়ে রাখেন ইশান্ত। অন্য প্রান্ত থেকে জাদেজা স্কোরবোর্ড সচল রাখেন। ঘন্টাখানেকের বেশি উইকেটে টিকে থেকে ১৯ রান করে ইশান্ত আউট হন। দলের শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ৫৮ রানে জাদেজা ফিরলেন। ভারতের ইনিংস গুটিয়ে গেলো ২৯৭ রানে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওপেনিং জুটি ৩৬ রানে ভাঙ্গতেই বিপর্যয়ের শুরু। ৮৮ রানে হারিয়ে ফেলে তারা ৪ উইকেট। মিডলঅর্ডারে রোস্টন চেজের ব্যাট থেকে আসে সর্বোচ্চ ৪৮ রান। প্রায় সব ব্যাটসম্যান শুরুটা ভালো করেও ইনিংস বড় করতে পারেননি।

ঈশান্ত শর্মার দুর্দান্ত স্পেলের কাছেই মুলত শক্ত অবস্থান থেকে ছিটকে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৫ উইকেটে ১৭৪ রান থেকে হঠাৎ করে দিনের শেষবেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৭৯ রানে ৮ উইকেট হারানো দলে পরিণত হয়। ঈশান্ত শর্মা দিনের নিজের শেষ স্পেলে ৮ রানে ৩ উইকেট শিকার করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ধসে পড়া আরেকটু ত্বরান্বিত করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: ভারত ১ম ইনিং: ২০৩/৬ (৬৮.৫ ওভারে, রাহুল ৪৪, আগরওয়াল ৫, পুজারা ২, কোহলি ৯, রাহানে ৮১, বিহারি ৩২, পান্থ ২০*, জাদেজা ৩*, রোচ ৩/৩৪, গ্যাব্রিয়েল ২/৪৯, চেজ ১/৪২)।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনি: ১৮৯/৮ (৫৯ ওভারে, ব্রাভো ১৮, চেজ ৪৮, হোপ ২৪, হেটমায়ার ৩৫, ইশান্ত ৫/৪২)।
*দ্বিতীয়দিন শেষে

টানা তিন ম্যাচে হারল বাংলাদেশের মেয়েরা

টানা তিন ম্যাচে হারল বাংলাদেশের মেয়েরা
বল দখলেও পিছিয়ে থাকল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২১ নারী দল

সেই একই গল্প! হারের বৃত্তেই বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২১ নারী হকি দল। তবে আগের দুই ম্যাচে ৬টি করে গোল হজম করলেও এবার কিছুটা উন্নতিও হয়েছে। ভারতের সাই ন্যাশনাল হকি একাডেমি নারী দল সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে তুলে নিয়েছে ৩-০ গোলের জয়।

রাজধানীর মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে শুক্রবার বাংলাদেশের মেয়েরা প্রথমার্ধ শেষ করে ০-২ গোলে পিছিয়ে থেকে। এরপর তৃতীয় কোয়ার্টারে আরেকটি গোল হজম করে। স্বস্তি এটাই এবার কম গোল হজম করেছে তারা।

ম্যাচে ভারতীয় দলটির হয়ে গোল তিনটি করেন সাক্ষী, লালওয়ান পুই ও লালরুতাফেলি মেসাবি।

৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত হবে ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপ। এই লড়াইয়ের আগে ঘরের মাঠে প্রস্তুতি পর্বে ভারতের সাই জাতীয় হকি একাডেমির নারী দলের সঙ্গে লড়ছে মেয়েরা। ৬ ম্যাচের সিরিজ খেলছে দুই দল।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/23/1566577980346.jpg

শুক্রবার ম্যাচের আগে দুই দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গে সৌজন্য স্বাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সভাপতি এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের সচিব ড. মোহাম্মদ জাফর উদ্দীন, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ ওয়াসেক মোহাম্মদ আলী, গ্রীন ডেল্টা ইন্সুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের সিনিয়র কনসালটেন্ট এ এস এ মুইজ ও ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ইকবাল বিন আনোয়ার ডন।

সিরিজের শেষ তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ২৫, ২৬ ও ২৭ আগস্ট।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র