Alexa

ট্রেনে ১৭০ টাকায় সেহরি

ট্রেনে ১৭০ টাকায় সেহরি

ছবি: বার্তা২৪

রংপুর এক্সপ্রেসে ঢাকা যাচ্ছিলেন তোফায়েল, মাহমুদ ও শিপন। রংপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ট্রেন ছাড়ার পর তিনজনই মজেন আড্ডায়। ঘড়ির কাটায় তখন রাত পৌনে ৯টা।

গল্পে গল্পে তাদের কেটে যায় ছয় ঘণ্টা। সময় হয় সেহরির। এ সময় খাবারের খোঁজ করতেই দায়িত্বে থাকা কর্মচারী জানান, সেহরিতে প্যাকেজ খাবারের ব্যবস্থা রয়েছে ট্রেনে। মূল্য ১৭০ টাকা। প্যাকেজে আছে- ভাত, ডাল, আলু ভর্তা, পটল ভাজি আর মুরগির মাংসের তরকারি।

ট্রেনে সেহরি

চলন্ত ট্রেনে তোফায়েল-শিপনদের মত অন্যরাও সেহরিব প্রস্ততি নিচ্ছিলেন। ট্রেনে সেহরি করার পরিবেশটা খুব জুতসই না হলেও খাবারের মান নিয়ে কারও তেমন অভিযোগ ছিল না। তবে দামে আপত্তি থাকায় অনেকে বাসা আনা খাবারে সেহরি সারেন।

ট্রেনে সেহরি সম্পর্কে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মচারী কায়সার আহমেদ বার্তা২৪.কমকে জানান, রংপুর এক্সপ্রেসে ১২টি বগিতে তার মতো ১৫ জন খাবার বিতরণ করেনে। সেহরির খাবার ভালো মানের হওয়ায় রোজাদারদের অনেকেই ট্রেনে খাবার খেয়ে থাকেন। এই খাবার কর্তৃপক্ষের সাথে চুক্তিবদ্ধ শরিফ হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট রেলওয়ে ক্যাটাররাস থেকে সরবরাহ করা হয়। দাম নিয়ে কারো কারো আপত্তি থাকলেও মান ভালো।

ট্রেনে সেহরি

একটু আগ বাড়িয়ে তোফায়েল, মাহমুদ আর শিপনের সাথে কথা বলে জানা গেল তারা তিনজনই সংবাদকর্মী। গাইবান্ধা, লালমনিরহাট ও নীলফামারী থেকে রংপুরে এসে একত্রিত হয়েছেন তারা। সেহরি খেয়ে তারা বললেন, খাবারের মান ভালো, তবে দাম বেশি।

দেখতে দেখতে ঘড়ির কাটায় সোয়া ৩টা। রংপুর এক্সপ্রেস অনেকগুলো স্টেশনকে পেছনে ফেলে ছুটছে আর ছুটছে। গন্তব্য ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন।

আপনার মতামত লিখুন :