Alexa

জোফরা-উডের বোলিং তোপে উইন্ডিজ ২১২

জোফরা-উডের বোলিং তোপে উইন্ডিজ ২১২

ইংলিশ বোলারদের দাপটে কম পুঁজিতেই শেষ উইন্ডিজ

মাঠে নামার আগে জয়ের বিকল্প কোনো চিন্তাই করেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু ক্যারিবিয়ানদের ব্যাটিংয়ে তার কোনো প্রতিফলনই নেই। জোফরা আর্চার ও মার্ক উড ঝড়ের সামনে ব্যাট হাতে যেন দাঁড়াতেই পারল না ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানরা। বিপর্যয় সামাল দিতে না পেরে ৪৪.৪ ওভারে ২১২ রানের বেশি তুলতে পারেনি উইন্ডিজ।

সাউদ্যাম্পটনে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে কাজের কাজ ঠিকই করেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। শুরুতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নামিয়ে দিয়েছে। দলীয় ৪ রানে অতিথি দলটি হারিয়ে ফেলে ওপেনার এভিন লুইসকে (২ রান)। তার পথ ধরে সাজঘরে ফেরেন ক্রিস গেইল (৩৬) ও শাই হোপ (১১)। দলের স্কোর তখন ৫৫।

চতুর্থ উইকেটে নিকোলাস পুরান (৬৩) ও শিমরন হেটমার (৩৯) ৮৯ রানের জুটি গড়ে দলের বিপদ কাটিয়ে উঠার আভাস দিতে থাকেন। কিন্তু দলকে ১৪৪ রানে এনে দিয়ে ফিরে যান হেটমার। তার বিদায়ে ফের শুরু হয় ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার পালা। মাঝে কেবল আন্দ্রে রাসেল ব্যাটিং দৃঢ়তার পরিচয় দিতে থাকেন। পুরানের সঙ্গে ৩২ রানের জুটি গড়ে স্বস্তিও এনে দিয়ে ছিলেন। তবে তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি।  তারকা এ অলরাউন্ডার ২১ রানের বেশি করতে পারেননি।

ইংল্যান্ডের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন দুই পেসার জোফরা আর্চার ও মার্ক উড। ২টি উইকেট নেন স্পিনার জো রুট।

তিন ম্যাচে দুই জয় আর এক হারে চার পয়েন্ট নিয়ে তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে ফেভারিট ইংলিশরা। উদ্বোধনী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর পর পাকিস্তানের কাছে হেরে বসে ইংল্যান্ড। তবে বাংলাদেশকে হারিয়ে খোয়া যাওয়া আত্মবিশ্বাসটা ফিরে পায় অধিনায়ক ইয়ন মরগানের দল। আজ শুক্রবার ক্যারিবিয়ানদের হারানোর প্রত্যয় নিয়েই রোজ বোলে লড়ছে টুর্নামেন্টের আয়োজকরা।

তিন ম্যাচে এক জয় আর এক হারে তিন পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে ওয়েস্ট ইন্ডিজরা। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে পরের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ধরাশায়ী হয় ক্যারিবিয়ানরা। আর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাদের সবশেষ ম্যাচ বৃষ্টির কারণে থেকে যায় অমীমাংসিত। তাই জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত উইন্ডিজই ইংল্যান্ডের মাঠের প্রতিপক্ষ।

আপনার মতামত লিখুন :