Alexa

২০ বছর আগের ও পরের ওয়ালশ

২০ বছর আগের ও পরের ওয়ালশ

বাংলাদেশের পেস বোলিং কোচ কোটর্নি ওয়ালশ, ছবি: সংগৃহীত

সেই তারিখটা ছিল ২১ মে, ১৯৯৯ সাল। ম্যাচের ভেন্যু ডাবলিন। বিশ্বকাপের ম্যাচে লড়ছে বাংলাদেশ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ম্যাচটা ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতে ৭ উইকেটে। ম্যাচসেরা হন একজন ফাস্ট বোলার।

-কোটর্নি ওয়ালশ!

১০ ওভারে ২৫ রানে ৪ উইকেট পান সেই ম্যাচে কোর্টনি ওয়ালশ। ২০৫ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে বাংলাদেশের বিপক্ষে সেটাই ছিল তার একমাত্র ম্যাচ। আর সেই ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় ওয়ালশ।

ঠিক ২০ বছর পর বিশ্বকাপের মাঠে আরেকবার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এবার ওয়ালশ বাংলাদেশ দলে! বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করছেন ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর থেকে। এর মাঝে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ অনেক ম্যাচ খেলেছে। বেশিরভাগই জিতেছে। কিন্তু এবারতো একেবারে আরেকবার বিশ্বকাপে মুখোমুখি। ২০ বছর আগে যে আসরে ওয়ালশের শ্রেষ্ঠত্বের কাছেই হেরেছিল বাংলাদেশ।

এই ম্যাচের আগে কি কিছুটা নস্টালজিক অনুভূতিতে আচ্ছন্ন ওয়ালশ?

সমারসেট কাউন্টির স্টেডিয়ামের ইনডোরে এমন প্রশ্নের উত্তরে নিরুত্তাপ গলায় ওয়ালশের জবাব, 'আমি ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান। তবে আমি এখন বাংলাদেশ দলের সঙ্গে আছি। আমি এখন বাংলাদেশের খেলা সব ম্যাচে জয় চাই। সেই প্রতিপক্ষ তালিকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজও আছে। খুবই চমৎকার হবে যদি আমরা আরেকটি জয় পাই বিশ্বকাপের পরের ম্যাচে।'

আবেগ-অনুভূতির ধারে কাছে দিয়েও গেলেন না ওয়ালশ। যা বললেন এবং বোঝালেন তার পুরোটা জুড়েই পেশাদারিত্ব! যে দলের হয়ে একসময় বিশ্বকাপ জিততে চেয়েছিলেন এখন আরেকটি বিশ্বকাপে সেই দলের হার দেখতে চান তিনি!

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/14/1560532088070.jpg

আর টন্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ইনপুট তিনি যোগান দিচ্ছেন, '১৭ জুনের ম্যাচ আমাদের জিততে হলে পারফরমেন্সের ধারাবাহিকতা দেখাতে হবে। আমরা পেছনের কয়েকটা ম্যাচে তাদের বিপক্ষে ভালো খেলেছি। আর এই ম্যাচে তার পুরো শক্তির দল নিয়েই নামছে। তাই আগে তাদের হারিয়েছি বলে আত্মতুষ্টিতে ভোগার কিছু নেই। ম্যাচের দিনের পারফরমেন্সই ম্যাচ আমাদের ম্যাচ জেতাবে।'

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল নিয়ে আলোচনা শুরু হলেই দুজন খেলোয়াড়ের নাম একটা আলাদা করে আসবেই, ক্রিস গেইল ও আন্দ্রে রাসেল। এই দুই ব্যাটিং ঝড়কে আটকানোর জন্য কি চিন্তা করছে বাংলাদেশ?

এই প্রশ্নের উত্তরে ওয়ালশ বললেন, 'তাদের বিরুদ্ধে আমাদের কিছু পরিকল্পনা আছে। তারা দুজনেই বিপদজনক খেলোয়াড়। এই দুজনকে দ্রুততম সময় ফিরিয়ে দিতে পারলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজের হাতে রাখা যায়। টন্টনের ম্যাচে আমাদের সেই কাজটাই করতে হবে।'

তবে বাংলাদেশ বোলিং কোচ জানিয়ে দিলেন, '১৭ জুনের ম্যাচে শুধু এই দুজনকে নিয়েই নয়, পুরো ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকেই ফোকাসে রেখে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ম্যাচ উইনারের সংখ্যা যে অনেক।'

ওয়ালশ আশাবাদী, 'ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ পুরো দল হিসেবে পারফর্ম করতে পারবে।'

বাংলাদেশের জয়ের জন্য সেটা প্রায়ই আবশ্যিক একটা শর্ত!

আপনার মতামত লিখুন :