Alexa

রুটের শতরানে উইন্ডিজকে উড়িয়ে দিল ইংল্যান্ড

রুটের শতরানে উইন্ডিজকে উড়িয়ে দিল ইংল্যান্ড

শতরানে দলে সহজ জয় এনে দিয়েছেন জো রুট

একেবারে হেসে-খেলে জয়। শুরুতে জোফরা আর্চারের বোলিং তোপ এরপর জো রুটের শতরান। ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেমেই পেলেন তিন অঙ্কের দেখা। তারই পথ ধরে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড।

শুক্রবার সাউথ্যাম্পটনের রোজ বোলে ৮ উইকেটে জিতেছে স্বাগতিকরা।

বিশ্বকাপের এই ম্যাচে টার্গেটও ছিল মামুলি। মাত্র ২১৩। সেই সংগ্রহটা ১০১ বল বাকি থাকতেই করে ফেলে ইংল্যান্ড।

ব্যাট হাতে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে ক্যারিবীয়রা। মার্ক উড ও জোফরা আর্চারের সামনে ছিল একেবারে অসহায়। দু'জন ২৪ রানের মধ্যে শেষ ৫ উইকেট তুলে নিলে কম পুঁজিতেই অল আউট হয় তারা।

নিয়মিত ওপেনার জেসন রয় চোট নিয়ে মাঠের বাইরে চলে গিয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইনিংসের অষ্টম ওভারে। একইভাবে আঘাত নিয়ে ৪০তম ওভারে মাঠ ছাড়েন অধিনায়ক ইয়ন মরগান। এ কারণেই ব্যাট অর্ডার বদলাতে হয় ইংল্যান্ডের। তারপরও বেগ পায়নি দলটি।

জন বেয়ারস্টোর সঙ্গে জুটি বাধেন জো রুট। প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেমে বেশ সাবলীল ছিলেন তিনি। এই জুটি তুলে ৯৫ রান। বেয়ারস্টো ৪৫ রান তুলে ফেরেন সাজঘরে। এরপর ক্রিস উইকস আউট ৪০ রানে।

বাকীটা পথ বেন স্টোকসকে নিয়ে পাড়ি দেন রুট। শেষ অব্দি ৯৪ বলে ঠিক ১০০ রান তুলে অপরাজিত থাকেন তিনি। স্টোকস অন্যপ্রান্তে অপরাজিত ১০ রানে।

এর আগে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে কাজের কাজ ঠিকই করেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। জোফরা আর্চার ও মার্ক উড ঝড়ের সামনে ব্যাট হাতে যেন দাঁড়াতেই পারল না ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানরা। বিপর্যয় সামাল দিতে না পেরে ৪৪.৪ ওভারে ২১২ রানের বেশি তুলতে পারেনি উইন্ডিজ।

দলের ৪ রানে অতিথি দলটি হারিয়ে ফেলে ওপেনার এভিন লুইসকে (২ রান)। তারই পথ ধরে সাজঘরে ফেরেন ক্রিস গেইল (৩৬) ও শাই হোপ (১১)। দলের স্কোর তখন ৫৫।

চতুর্থ উইকেটে নিকোলাস পুরান (৬৩) ও শিমরন হেটমার (৩৯) ৮৯ রানের জুটি গড়ে দলের বিপদ কাটিয়ে উঠার আভাস দিতে থাকেন। কিন্তু দলকে ১৪৪ রানে এনে দিয়ে ফিরে যান হেটমার। তার বিদায়ে ফের শুরু হয় ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার পালা। মাঝে কেবল আন্দ্রে রাসেল ব্যাটিং দৃঢ়তার পরিচয় দিতে থাকেন। পুরানের সঙ্গে ৩২ রানের জুটি গড়ে স্বস্তিও এনে দিয়ে ছিলেন। তবে তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি।  তারকা এ অলরাউন্ডার ২১ রানের বেশি করতে পারেননি।

ইংল্যান্ডের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন দুই পেসার জোফরা আর্চার ও মার্ক উড। ২টি উইকেট নেন স্পিনার জো রুট।

এ অবস্থায় চার ম্যাচে তিন জয় আর এক হারে ছয় পয়েন্ট স্বাগতিক ইংল্যান্ডের। অন্যদিকে চার ম্যাচে এক জয়, দুই হার আর একটি পরিত্যক্ত ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অর্জন তিন পয়েন্ট। সেমি-ফাইনালে উঠার পথটা কঠিনই হয়ে গেল ক্যারিবীয়দের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-
ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৪৪.৪ ওভারে ২১২/১০ (গেইল ৩৬, লুইস ২, হোপ ১১, পুরান ৬৩, হেটমায়ার ৩৯, হোল্ডার ৯, রাসেল ২১, ব্র্যাথওয়েট ১৪, কটরেল ০, টমাস ০*, গ্যাব্রিয়েল ০; ওকস ১/১৬, আর্চার ৩/৩০, প্লানকেট ১/৩০, উড ৩/১৮, রুট ২/২৭)
ইংল্যান্ড: ৩৩.১ ওভারে ২১৩/২ (বেয়ারস্টো ৪৫, রুট ১০০*, ওকস ৪০, স্টোকস ১০*; গ্যাব্রিয়েল ২/৪৯)
ফল: ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী
ম্যাচসেরা: জো রুট

আপনার মতামত লিখুন :