Alexa

নোয়াখালীতে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংর্ঘষ

নোয়াখালীতে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংর্ঘষ

ছবি: সংগৃহীত

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে নোয়াখালীতে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংর্ঘষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার (১৪ জুন) সন্ধা ৬টায় সোনাইমুড়ী উপজেলার পাঁচবাড়িয়ায় দুই গ্রুপের এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতদেরকে বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলা আওয়ামী লীগের এক নেতা জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইব্রাহিম সমর্থিত সোহাগ ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী (এপিএস) জাহাঙ্গীর সমর্থিত স্বপন গ্রুপ সংর্ঘষে জড়িয়ে পড়ে।

জানা যায়, সংঘর্ষে উভয় গ্রুপ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র ব্যবহার করে। সংর্ঘষ ছড়িয়ে পড়ে বসত বাড়িতে। এ সময় বেপারী বাড়ি, পাঠান বাড়ি, পাটওয়ারি বাড়ি ও কেরানি বাড়ির বসত ঘর, আসবাবপত্র ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়।

সোনাইমুড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.ফ.ম বাবু (এমপি-পন্থী) বলেন, ‘এপিএস জাহাঙ্গীর সমর্থিত স্বপন চাঁদাবাজি মামলায় জামিনে মুক্ত হয়ে সকালে স্থানীয় নেঙ্গু বেপারী বাড়ির কামালের বসত ঘরে হামলা চালান। এ সময় স্বপনের নেতৃত্বে কামাল সহ সাতজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়।

অন্যদিকে জাহাঙ্গীর সমর্থিতরা অভিযোগ করছেন, এমপি সর্মথিত আ.ফ.ম বাবুর ভাতিজা শান্তর নেতৃত্বে বাড়িঘরে হামলা হয়।
সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা আঃ সামাদ আজাদ বলেন, ‘পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’

আপনার মতামত লিখুন :