জাতিসংঘের ইকোসক’র সদস্য হলো বাংলাদেশ

সালাহউদ্দিন আহমেদ, জাতিসংঘ থেকে
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ জাতিসংঘের ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কাউন্সিল- ইসিওএসওসি (অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদ-ইকোসক) -এর সদস্য নির্বাচিত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৪ জুন) সকালে অনুষ্ঠিত বিশেষ বৈঠকে গোপন ভোটে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বাংলাদেশ আগামী তিন বছরের (২০২০-২০২২) জন্য সদস্য নির্বাচিত হলো।

নির্বাচনে বাংলাদেশ ১৯১ ভোটের মধ্যে ১৮১টি ভোটে পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ছাড়াও আরো চারটি দেশ ইসিওএসওসি’র সদস্য নির্বাচত হয়েছে। অন্য দেশ তিনটি হলো- থাইল্যান্ড, রিপাবলিক অব কোরিয়া ও চীন। নির্বাচনে থাইল্যান্ড ১৮৭, কোরিয়া ১৮৩ এবং চীন ১৭৭ ভোট পেয়েছে।

ECOSEC

উল্লেখ্য, জাসিংঘের সিকিউরিটি কাউন্সিলের পরেই ইকোসক-কে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ফোরাম হিসেবে বিবেচনা করা হয়। নির্বাচনে ইকোসক’র চারটি পদের জন্য উল্লিখিত চারটি দেশ ছাড়াও ইরাক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে ইরাক তার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেয়।

ECOSEC

জাতিসংঘের ইকোসক’র নির্বাচন শেষে তাৎক্ষনিক ব্রিফিংয়ে রাষ্ট্রদূত মাসুদ মিন মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, ইকোসক-তে এই জয়লাভের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক যাত্রার উন্নয়নে বিশ্ববাসীর প্রতিফল। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের অবস্থান আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল। এতে বাংলাদেশ আগামী ২০৩০ সালের জাতিসংঘের এসডিজি এজেন্ডা বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখবে।

ECOSEC

এক প্রশ্নের উত্তরে রাষ্ট্রদূত বলেন, জাতিসংঘে বাংলাদেশের আগামী দিনের টার্গেট হচ্ছে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ ফোরাম সিকিউরটি কাউন্সিলের সদস্যপদ লাভ করা। তবে এটি সহজ নয়, অনেক দেশ এই পদের জন্য এগিয়ে রয়েছে। এজন্য আমাদেরকে আরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। আমরা আশাবাদী। সেই সাথে ইকোসক’র প্রেসিডেন্টর পদটিই আমাদের লক্ষ্য।

আপনার মতামত লিখুন :