ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদ কারাগারে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদ, ছবি: সংগৃহীত

ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদ, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

৩ কোটি ৮ লাখ টাকা মূল্যের একটি ফ্ল্যাট কেনার অর্থের বৈধ উৎস দেখাতে না পারায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় কারা সদর দফতরের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি প্রিজন) বজলুর রশিদকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রোববার (২০ অক্টোবর) বিকেলে তাকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে দুদক। শুনানি শেষে ভারপ্রাপ্ত ঢাকা মহানগর সিনিয়র জজ মো. আল-মামুন তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

ফ্ল্যাট কেনার বৈধ উৎস দেখাতে না পারায় তাৎক্ষণিক দুদকের দায়ের করা এক মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারের পর দুদক সচিব মোহম্মদ দিলোয়ার বখত সাংবাদিকদের জানান, 'বজলুর রশিদের বিরুদ্ধে ঘুষ লেনদেন, ক্ষমতার অপব্যবহার ও নিয়োগ বাণিজ্যের মতো বেশ কিছু গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। আপাতত একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হলেও অনুসন্ধানের পর তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হলে আরও মামলা করা হবে।'

এর আগে রোববার দুপুর ২টার দিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদকে দুদক কার্যালয়ে ডাকা হয়। জিজ্ঞাসাবাদকালে জানা যায়, রূপায়ন ডেভেলপারের অধীনে সিদ্ধেশ্বরী রূপায়ন টাওয়ারে পাশে তিন কোটি আট লাখ টাকার একটি ফ্ল্যাট রয়েছে তার। এই ফ্ল্যাট কেনার অর্থ আয়কর নথিতে গোপন করা এবং ফ্ল্যাট কেনার অর্থের বৈধ কোনো উৎস দেখাতে না পারায় তাৎক্ষণিক দায়ের করা এক মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আরও পড়ুন: দুদক কার্যালয়ে ডিআইজি প্রিজনকে জিজ্ঞাসাবাদ

ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদ গ্রেফতার

আপনার মতামত লিখুন :