পাওনা বেতনের দাবিতে অন্বেষার শ্রমিকদের বিক্ষোভ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪

ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

আশুলিয়ার অন্বেষা ফ্যাশন লিমিডেটের ইউনিট-১. ইউনিট-২ ও ইউনিট-৬ হঠাৎ করে মালিকপক্ষ বন্ধ করে দেওয়ায় বিপাকে পড়েছেন প্রায় ছয়শ শ্রমিক। তাদের আইনানুগ পাওনাদি পরিশোধের দাবিতে তাই বিক্ষোভ করেছেন কারখানাটির শ্রমিকরা।

১১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার প্রেসক্লাবের সামনে অন্বেষা ফ্যাশন লি: এর শ্রমিকরা বিক্ষোভ করে।

শ্রমিকরা জানান, অন্বেষা ফ্যাশন এর ইউনিট-১ এ কাজ করতেন প্রায় চারশ শ্রমিক। আর ইউনিট-২ তে কাজ করতে দুইশ শ্রমিক। আমরা দীর্ঘ দিন ধরে কাজ করছি অন্বেষা ফ্যাশনে। আজ অন্বেষা ফ্যাশন যে এতো বড় গ্রুপ হয়েছে তা শ্রমিকদের কারণেই। কিন্তু কোনো কারণ ছাড়াই বিনা নোটিশে কারখানাটির তিনটি ইউনিট বন্ধ করে দিলো মালিকরা। এ সময় আমাদের যে পাওনাদি আছে তাও দেওয়া হয়নি। এখন আমরা কোথায় যাবো। পরিবার পরিজন নিয়ে আমাদের রাস্তায় বসা ছাড়া কোনো উপায় নেই।

সমাবেশে উপস্থিত হয়ে জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি আমিরুল হক আমিন বলেন, কোনো কারণে ছাড়াই হঠাৎ কারখানা বন্ধ করে দেওয়া আইন বহির্ভূত। তারপরও যদি এমন পরিস্থিতি হয়, কারখানা বন্ধ করে দেওয়া ছাড়া উপায় নেই তাহলে অবশ্যই শ্রমিকদের আইনগতভাবে পাওনা পরিশোধ করতে হবে। তাছাড়া এ সময় শ্রমিকদের টার্মিনেশন বেনিফটও দিতে হবে মালিকপক্ষকে। কিন্তু অন্বেষা গার্মেন্টস এর শ্রমিকরা কিছুই পায়নি। রীতিমতো তাদের সাথে অন্যায় করা হয়েছে। আমি তাদের সকল পাওনাদি মালিকপক্ষকে পরিশোধের জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের  সাধারণ সম্পাদক আরিফা আক্তার, সাফিয়া পারভীন, মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক প্রমুখ।

 

আপনার মতামত লিখুন :