বাণিজ্য মেলা: আশায় বুক বাঁধছেন ব্যবসায়ীরা

ঊর্মি মাহবুব, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
চলছে বাণিজ্য মেলার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি/ ছবি: বার্তা২৪.কম

চলছে বাণিজ্য মেলার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি/ ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

স্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিস্থিতি, ঊর্ধ্বমুখী অর্থনীতি ও বর্হিবিশ্বে বাংলাদেশের ইতিবাচক ইমেজের কারণে ২৪তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা নিয়ে আশায় বুক বাঁধছেন ব্যবসায়ীরা।

আগামীকাল বুধবার (৯ জানুয়ারি) আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ। অন্য যেকোনো বারের তুলনায় এবারের রাজনৈতিক পরিস্থিতি শান্ত থাকায় দর্শনার্থীদের সংখ্যা কয়েকগুণ বেড়ে যাবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা।

কানিজ এন্টারপ্রাইজ এর কর্মকর্তা মো: নূর এ আলম বার্তা২৪কে বলেন, ‘বিভিন্নবার দেখেছি যে রাজনৈতিক পরিস্থিতি অশান্ত থাকায় মন্দার মুখোমুখি হতে হয়েছে বাণিজ্য মেলার ব্যবসায়ীদের। এবার নির্বাচনের আগে নানা আশঙ্কা ছিলো। কিন্তু শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হওয়ায় সেই আশঙ্কা কেটে গেছে। এটা যে শুধু আমাদের ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রেই হচ্ছে তা কিন্তু নয়। যেহেতু আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। তাই ঢাকা ও ঢাকার বাইরে থেকেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক দর্শনার্থীর দেখা মিলবে মেলায়।

অন্যদিকে আলী ফ্যাশনের রুহুল আমিন বলেন, ‘অন্য তুলনায় এবার দর্শনার্থীর সংখ্যা বেশি থাকবে। একে তো নতুন সরকার দায়িত্ব নিয়েছে, এমনিতেই একটা উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। তাছাড়া যেহেতু কোনো মারামারি হানাহানি হয়নি নির্বাচনের পর, তাই ঢাকার বাইরে থেকেও প্রচুর ক্রেতা আসবেন। তাই আমাদের বিক্রিও এই বাণিজ্য মেলায় অনেক বেশি হবে বলে আশা করছি।’

ক্রেতা-ভোক্তাদের সুবিধার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) পক্ষ থেকে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বরত  কর্মকর্তারা। ইপিবি জানায়, মেলায় দর্শনার্থীদের বিনোদন ও নতুন প্রজন্মকে দেশের কৃষ্টি সংস্কৃতি, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সম্পর্কে উদ্বুদ্ধ করতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্যোগ নেওয়া  হয়েছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/08/1546944422525.gif

অন্যদিকে খাদ্য দ্রব্যের মান নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের পৃথক বুথ থাকছে মেলায়। কর্তব্যরত ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে মেলা চলাকালীন ভেজালবিরোধী অভিযান চালানো হবে। তাছাড়া মা ও শিশুদের জন্য দুটি কেন্দ্র রাখা হয়েছে, যেখানে তারা সব ধরনের সহায়তা পাবেন।

২৪তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় মোট প্যাভিলিয়েনের সংখ্যা থাকছে ১১০টি। মিনি প্যাভিলিয়ন থাকছে ৮৩টি ও মোট স্টল থাকছে ৪১২টি।

আপনার মতামত লিখুন :