ব্যবসাকে আরও সহজ করা হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি/ ছবি: সংগৃহীত

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি/ ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বৈশ্বিকভাবে বাংলাদেশের ব্যবসা সূচকের অবস্থান খুব একটা ভাল নয় মন্তব্য করে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি বলেছেন, `বৈদেশিক বিনিয়োগ আকৃষ্ট ও অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য উন্নয়নে ব্যবসা সহজীকরণ সংক্রান্ত সবধরনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। যেকোনোভাবেই হোক আমাদের ব্যবসাকে সহজীকরণ ও তা সবার জন্য উন্মুক্ত করতে হবে। পাশাপশি একে হয়রানি ও দীর্ঘসূত্রিতামুক্ত করা হবে।’

বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিনা সুয়্যেমারনো বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে এলে সাক্ষাৎ পরবর্তী ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

টিপু মুন্শি সাংবাদিকদের জানান, ইন্দোনেশিয়া ২৬ কোটি মানুষের দেশ। বিরাট বাজার। সেখানে কোনো একটি পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ করতে পারলে তা বাংলাদেশের রফতানিকে অনেক উচ্চতায় নিয়ে যাবে। আমরা চাই দেশটির সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধি পাক। তারাও চায় বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ-ইন্দোনেশিয়া উভয়ই প্রিফারেন্সিয়াল ট্রেড এগিমেন্ট (পিটিএ) স্বাক্ষরে আগ্রহী। যার কার্যক্রম এখন চলছে। এ বিষয়ে দ্বিপক্ষীয় অগ্রগতি আলোচনার জন্যই রাষ্ট্রদূত সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্য সহযোগিতা বৃদ্ধি করতে ভিসা ইস্যুর ক্ষেত্রে কিছু জটিলতা আছে, সেগুলো নিরসণে উদ্যোগ নেওয়া হবে। তাছাড়া ইন্দোনেশিয়ার বাজারে বাংলাদেশের চামড়াজাত পণ্য, ওষুধ ও তৈরি পোশাকসহ অনেক পণ্য রফতানির বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। এ সম্ভাবনাকে কাজ লাগাতে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’

ঢাকায় নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বাংলাদেশ ইন্দোনেশিয়ার ভালো বন্ধুরাষ্ট্র। দুই দেশের বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। ইন্দোনেশিয়া বাংলাদেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন খাতে বিনিয়োগ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। ইন্দোনেশিয়ার পর্যটকরা বাংলাদেশ আসতে চায়। এ জন্য ভিসা জটিলতা নিরসণ করা প্রয়োজন।’

‘তাছাড়া ইন্দোনেশিয়া বাংলাদেশের সাথে অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোড়দার করতে আগ্রহী। এ জন্য উভয় দেশ আরো ঘনিষ্টভাবে কাজ করবে।’ এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (এফটিএ-২) মো. বদরুল আহসান বাবুল উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বাণিজ্যমন্ত্রী টঙ্গীর তুরাগে অবস্থিত বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ ফ্যাশন এন্ড টেকনোরজির স্প্রিং ২০১৯ সেশনের অরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন। অফিসে ব্যবসায়ী আজম জে. চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের সঙ্গে ও ইন্টারন্যাশনাল ফাইনান্স করপোরেশন এর বাংলাদেশ, ভূটান ও নেপালের কান্ট্রি ম্যানেজার মিসেস উয়েন্ডি উয়ারনার এর সঙ্গেও তিনি মতবিনিময় করেন।

আপনার মতামত লিখুন :