Alexa

পুঁজিবাজারে লেনদেন কমেছে সোয়া ৪ হাজার কোটি টাকা

পুঁজিবাজারে লেনদেন কমেছে সোয়া ৪ হাজার কোটি টাকা

পুঁজিবাজারে লেনদেন কমেছে সোয়া ৪ হাজার কোটি টাকা। ছবি: প্রতীকী

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের তুলনায় মার্চ মাসে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৪ হাজার ৩৮৭ কোটি ২৩ লাখ টাকার বেশি লেনদেন কমেছে।

বিদায়ী মাসের বেশির ভাগ সময় লেনদেনে দরপতন ছিল। এ কারণে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম, সূচক এবং বাজার মূলধনও কমেছে।

নাম না প্রকাশের শর্তে ডিএসইর একাধিক সদস্য বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘লেনদেন কমায় ব্রোকারেজ হাউজগুলোকে লোকসান গুনতে হচ্ছে। এই অবস্থা বেশি দিন অব্যাহত থাকলে ব্যবসাই বন্ধ করে দিতে হবে।’

ডিএসই তথ্য মতে, মার্চ মাসে ডিএসইতে মোট ১৯ কার্যদিবসে ৯ হাজার ৩৯১ কোটি ৭৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। অথচ এর আগের মাস ফেব্রুয়ারিতে ১৮ কার্যদিবসে বিনিয়োগকারীদের মোট ১৩ হাজার ৭৭৯ কোটি ১ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছিল।

সেই হিসাবে লেনদেন কমেছে ৪ হাজার কোটি টাকার বেশি। এ কারণে সরকার মাত্র ২৩ কোটি ৪৮ লাখ ৭৪ হাজার ৫৯৩ টাকার রাজস্ব পেয়েছে। লেনদেন বেশি হলে আরও বেশি রাজস্ব আয় পেত সরকার। এমনটি মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

ঘটনাবহুল এই মাসে লেনদেনের পাশাপাশি সূচক কমেছে ২৫৯ পয়েন্ট। ফলে বিনিয়োগকারীরাও পুঁজি অর্থাৎ বাজার মূলধন হারিয়েছে ১ হাজার ৭৯৭ কোটি ৬৮ লাখ ১৩ হাজার টাকা।

তবে চলতি বছর শুরু হয়েছিল বেশ আশা জাগিয়ে। ফলে জানুয়ারি মাসে ২৩ কার্যদিবসে মোট ২২ হাজার ৩৪৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছিল। সেখান থেকে সরকারও রাজস্ব পেয়েছিল ৩২ কোটি টাকার মতোই।

আপনার মতামত লিখুন :

অর্থনীতি এর আরও খবর