এগিয়ে পরিষদ-ফোরাম জোট, পিছিয়ে স্বাধীনতা পরিষদ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, ঢাকা, বার্তা ২৪.কম
ভোটের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা, ছবি: বার্তা২৪

ভোটের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) নির্বাচনের ভোট গণনা চলছে। সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত ৬১৩টি ভোট গণনা হয়েছে। গণনায় এগিয়ে রয়েছে পরিষদ-ফোরাম প্যানেল ও পিছিয়ে রয়েছে স্বাধীনতা পরিষদ।

বিজিএমইএ এর প্রজেক্টরে প্রতি মুহূর্তের কে কতো ভোট পাচ্ছেন তা দেখানো হচ্ছে। সন্ধ্যা ৬ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত ৬১৩ টি ভোট গণনা হয়েছে। এর মধ্যে পরিষদ-ফোরাম প্যানেল লিডার রুবানা হক পেয়েছেন ৫৭৪টি ভোট ও স্বাধীনতা পরিষদ এর প্যানেল লিডার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম পেয়েছেন ১১০টি ভোট। প্রায় একই অবস্থা দুই প্যানেলের প্রার্থীদেরও।

এ সময় পর্যন্ত সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন পরিষদ-ফোরাম প্যানেলের এম এ রহীম। তার ব্যালট নম্বর সাত। তিনি সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত পেয়েছেন ৫৯৪টি ভোট।

বিজিএমইএ এর নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত ঢাকা অঞ্চলের ১ হাজার ৫৯৭ জন ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ১ হাজার ২০৪ জন।

অন্যদিকে, চট্টগ্রামে ৩৫৮ জন ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ২৮৮ জন। সে হিসাবে মোট ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৭৬ দশমিক ২৮ শতাংশ।

ভোট গ্রহণ কার্যক্রম শেষ হয়েছে শনিবার বিকাল চারটায়। বিকাল সাড়ে চারটা থেকে ভোট গণনা কার্যক্রম শুরু হয়।

দীর্ঘ পাঁচ বছর পর হচ্ছে বিজিএমইএ'র নির্বাচন। পরিষদ-ফোরাম জোটের নেতৃত্ব দিচ্ছেন মোহাম্মাদী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবানা হক।

অন্যদিকে, স্বাধীনতা পরিষদ এর নেতৃত্ব দিচ্ছেন ডিএসএল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

ভোটারদের মধ্যে ঢাকা অঞ্চলের ২৬ জন পরিচালক নির্বাচনের জন্য ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। সেক্ষেত্রে একটি ব্যালট পেপারে ৪৪ জন প্রার্থীর মধ্যে ২৬টি ভোট দিতে পারবেন ভোটাররা। তবে এক্ষেত্রে বেশ খানিকটা সাবধান হতে হবে ভোটারদের। ২৬ জনকে ভোট দিতেই হবে একজন ভোটারকে। নয়তো ব্যালট পেপার বাতিল হয়ে যাবে।

তবে চট্টগ্রামের পরিচালকদের জন্য ভোট দিতে হয়নি ভোটারদের। পরিষদ-ফোরাম জোটের নয় জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চট্টগ্রাম অঞ্চলের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। ঢাকা ও চট্টগ্রাম মিলিয়ে ৩৫ জন পরিচালক নির্বাচিত হবেন শনিবার।

আরও পড়ুন: বিজিএমইএ’র নির্বাচনে ৭৬.২৭ শতাংশ ভোট পড়েছে

আপনার মতামত লিখুন :