Alexa

সূচক কমে চলছে পুঁজিবাজারের লেনদেন

সূচক কমে চলছে পুঁজিবাজারের লেনদেন

ডিএসই-সিএসইর লোগো

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) সূচক কমে চলছে এ দিনের লেনদেন।

বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ২১ পয়েন্ট। এছাড়া সিএসইর প্রধান সূচক সিএসসিএক্স কমেছে ১৭ পয়েন্ট।

একই সময়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৬৬ কোটি ৬৮ লাখ টাকা এবং সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৩৯ লাখ টাকা।
ডিএসই ও সিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসই

এদিন ডিএসইতে লেনদেনের শুরুতে সূচক কমে। লেনদেন শুরু হয় সকাল সাড়ে ১০টায়, এরপর প্রথম ৫ মিনিটেই ডিএসইএক্স সূচক ৩ পয়েন্ট কমে। এরপর থেকে সূচক কমার প্রবণতা বাড়তে থাকে। বেলা ১০টা ৪০ মিনিটে সূচক গত কার্যদিবসের চেয়ে ৫ পয়েন্ট কমে যায়। বেলা ১০টা ৫০ মিনিটে সূচক গত কার্যদিবসের চেয়ে ১৫ পয়েন্ট কমে। বেলা ১১টায় ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ২১ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৫ হাজার ৩৫০ পয়েন্টে।
অন্যদিকে, ডিএসই-৩০ সূচক ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৯১৩ পয়েন্টে এবং ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ২৩৮ পয়েন্টে।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৭ কোটি ২ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। গত কার্যদিবসে একই সময়ে লেনদেন হয়েছিল ৯৫ কোটি ৯২ লাখ টাকা।

বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৬৭টির, কমেছে ১৩১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৬টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইতে দাম বৃদ্ধি পাওয়া শীর্ষ দশ কোম্পানির তালিকায় আছে- এস্কয়ার নিট কম্পোজিট, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ, ইস্টার্ন কেবল, রেকিট বেঞ্চকিজার, ইউনাইটেড পাওয়ার, ফরচুন সু, মুন্নু সিরামিকস, গ্রামীণফোন, জেএমআই সিরিঞ্জ এবং বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল।

সিএসই

অন্যদিকে, একই সময়ে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ সূচক (সিএসইএক্স) ১৭ পয়েন্ট কমে ৯ হাজার ৯৬১ পয়েন্টে, সিএসই-৩০ সূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ৩৯৪ পয়েন্টে এবং সিএএসপিআই সূচক ২৯ পয়েন্ট কমে ১৬ হাজার ৪৪৯ পয়েন্টে অবস্থান করে।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৩৯ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। গত কার্যদিবসে একই সময়ে লেনদেন হয়েছিল ২ কোটি ৫৮ লাখ টাকা।

একই সময়ে দাম বাড়ার ভিত্তিতে সিএসইর শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো- মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, অ্যাডভেন্ট, সিএনএ টেক্সটাইল, মালেক স্পিনিং, ড্রাগন সোয়েটার, ইস্টার্ন কেবল, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, ফুওয়াং ফুড, হাক্কানী পেপার এবং সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট।

 

আপনার মতামত লিখুন :

অর্থনীতি এর আরও খবর