Alexa

ব্যাংকের ‘পচা’ শেয়ারে নজর ছিল বিনিয়োগকারীদের

ব্যাংকের ‘পচা’ শেয়ারে নজর ছিল বিনিয়োগকারীদের

শেয়ার বাজার, ছবি: বার্তা২৪

দরপতনের মাসে (মার্চ) বিনিয়োগকারীদের নজর ছিল ‘পচন’ ধরা ব্যাংকের শেয়ারের দিকে। আর তাতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষে দশে থাকা কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচায় মার্চে লেনদেনের শীর্ষে উঠে এসেছে।

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এ খাতের ত্রিশটি ব্যাংকের ৫২ কোটি ৬২ লাখ ৯৭ হাজার ৪২৭টি শেয়ার কেনা-বেচা বাবদ লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪৬৫ কোটি ৯ লাখ ৪০ হাজার ৪৭৪ টাকা। যা ডিএসইর মোট লেনদেনের ১৫ দশমিক ৬০ শতাংশ।

এক সময় পুঁজিবাজারের প্রাণ বলে খ্যাত ব্যাংক খাতের শেয়ারকে এখন বিনিয়োগকারীরা পচা শেয়ার বলে। কারণ এ খাতের অন্তত ৮-১০ ব্যাংকের শেয়ার দাম ফেস ভ্যালু অর্থাৎ অভিহিত মূল্যের নিচে কিংবা কাছাকাছি জায়গায় অবস্থান করছে।

ডিএসইর তথ্য মতে মার্চ মাসে ১৯ কার্যদিবসে ৯ হাজার ৩৯১ কোটি ৭৮ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। তার মধ্যে ১ হাজার ৪৬৫ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে ব্যাংক খাতের শেয়ার কেনা-বেচা বাবদ।

এরপর লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে প্রকৌশল খাতের শেয়ার। এ খাতের ১৫ কোটি ৬৩ লাখ ৬১ হাজার ১৬০টি শেয়ার থেকে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৩২২ কোটি ৪১ লাখ ১২ হাজার ৪৩২ টাকা। যা শতাংশের হিসেবে ১৪ দশমিক ০৮ শতাংশ।

তৃতীয় স্থান দখল করেছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত। এ খাতের ৮ কোটি ৬০ লাখ ৯৭ হাজার ৩০৭টি শেয়ার কেনা-বেচা বাবদ লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৬২ কোটি ২২ লাখ ১৬ হাজার ৪৪৬ টাকা। যা শতাংশের হিসেবে ১১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

এক হাজার কোটি টাকার কিছু কম লেনদেন হয়েছে বস্ত্র খাতের কোম্পানির শেয়ার থেকে। এ খাতে ৩০ কোটি ৪৩ লাখ ৫ হাজার ৭০৪টি শেয়ার কেনা-বেচা বাবদ লেনদেন হয়েছে ৯১৮ কোটি ২৬ লাখ ৪৭ হাজার ২৯৮ টাকা। যা শতাংশের হিসেবে ৯ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

পঞ্চম স্থান দখল করেছে ওষুধ ও রসায়ন খাত। এ খাতের কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচা বাবদ লেনদেন হয়েছে ৯০৩ কোটি ৬১ লাখ ৯৪ হাজার ১০০ টাকা।

অন্যান্য খাতের মধ্যে ডিএসইর মোট লেনদেনের ৬ দশমিক ৭৬ শতাংশ লেনদেন হয়েছে বিমা খাতের কোম্পানির শেয়ার কেনা-বেচা থেকে। খাদ্য খাতের শেয়ার থেকে লেনদেন হয়েছে ৬ দশমিক ৪৪ শতাংশ। ৫ দশমিক ৪৩ শতাংশ লেনদেন হয়েছে সিরামিক খাত থেকে। বাকি ২২ শতাংশ লেনদেন হয়েছে ১২ খাত থেকে।

বর্তমানে পুঁজিবাজারে বিশটি খাতে সাড়ে তিনশ কোম্পানি তালিকাভুক্ত রয়েছে।

বাকি খাতগুলো হচ্ছে- টেলিযোগাযোগ, ট্যানারি, খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক, পাট ইত্যাদি খাত।

আপনার মতামত লিখুন :