চিকিৎসক-আইনজীবীদের ট্যাক্স বাড়ানোর উপায় খোঁজা হচ্ছে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, সিলেট, বার্তা২৪.কম
সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও এনবিআর এর উদ্যোগে প্রাক-বাজেট আলোচনা সভা, ছবি:বার্তা২৪.কম

সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও এনবিআর এর উদ্যোগে প্রাক-বাজেট আলোচনা সভা, ছবি:বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চিকিৎসক ও আইনজীবীদের ট্যাক্স বাড়ানোর উপায় খোঁজা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। তিনি বলেছেন, এই দুই পেশাজীবীদের আয়ের বিষয়টি এখনো সকলের কাছে পরিস্কার নয়। এছাড়া প্রাইভেট হাসপাতালে ট্যাক্স আরও বাড়ানো প্রয়োজন বলে মত দেন তিনি।

শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর দরগাহ গেইটস্থ একটি হোটেলে সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের উদ্যোগে প্রাক-বাজেট আলোচনায় তিনি এসব কথা জানান।

২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের জাতীয় বাজেটের ওপর এ প্রাক-বাজেট আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন সিলেট চেম্বারের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ।

সভায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য, প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, সিলেট চেম্বারের সদস্য, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে,আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারকে মূল ভিত্তি হিসেবে বিবেচনায় নিয়ে এবারের বাজেট প্রণয়ন করা হচ্ছে। দারিদ্র্য বিমোচন, কর্মসংস্থান, সামাজিক সুরক্ষা এবং বিনিয়োগ আকৃষ্ট করা এবারের বাজেটের অন্যতম লক্ষ্য। সবচেয়ে বেশি জোর দেয়া হচ্ছে দারিদ্র্য বিমোচন ও কর্মসংস্থানে।

আগামী অর্থবছরের জন্য প্রাথমিকভাবে বাজেটের আকার ধরা হয়েছে পাঁচ লাখ ২৪ হাজার ৯৫০ কোটি টাকা, যা চলতি অর্থবছরের বাজেটের চেয়ে প্রায় ৬০ হাজার কোটি টাকা বা সাড়ে ১৩ শতাংশ বেশি।

আপনার মতামত লিখুন :