২০ রমজানের মধ্যে বেতন বোনাস পরিশোধের দাবি শ্রমিকদের

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, আশুলিয়া(ঢাকা)
দুপুরে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের হলরুমে সংবাদ  সম্মেলন করে ১০টি শ্রমিক সংগঠন, ছবি: বার্তা২৪.কম

দুপুরে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের হলরুমে সংবাদ সম্মেলন করে ১০টি শ্রমিক সংগঠন, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

আশুলিয়ায় ২০ রমজানের মধ্যে শ্রমিকদের ঈদ বোনাস, শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ ও ছাঁটাইকৃত শ্রমিকদের চাকরিতে পুনর্বহাল চেয়েছে শ্রমিকরা। প্রায় ১০টি শ্রমিক সংগঠনে এসব দাবিতে যৌথভাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে। শুক্রবার (১৭ মে) দুপুরে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের হলরুমে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সম্মেলনে শ্রমিক নেতারা বলেন, ঈদকে সামনে রেখে আশুলিয়ার কিছু কিছু পোশাক কারখানায় কৌশলে শ্রমিক ছাঁটাই করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত প্রায় পাঁচ শতাধিক শ্রমিক ছাঁটাই করেছে বিভিন্ন পোশাক কারখানা। ছাঁটাইকৃত শ্রমিকদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিঘ্নিত হয়েছে। ঈদের পূর্বে কারখানার শ্রমিক ছাঁটাই ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে। যে সকল কারখানা শ্রমিকদের বেতন বোনাস না দিয়ে অনির্দিষ্ট কালের বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে তাদেরকে অবিলম্বে শ্রমিকের বকেয়া বেতন পরিশোধ করতে হবে।

এসময় চলতি মাসের পুরো বেতন ঈদের আগে পরিশোধের দাবি জানিয়ে শ্রমিক পরিবার ফাউন্ডেশনের সভাপতি সারোয়ার হোসেন বলেন, ২০ রমজানের মধ্যে শ্রমিকদের বোনাস পরিশোধ করতে হবে। এ মাসের মধ্যে ছুটি ও ওভারটাইমের টাকা পরিশোধ করারও দাবি জানান তিনি।

তিনি বলেন, বিজিএমইএ ও বিকেএমইএর সিদ্ধান্ত মোতাবেক শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধে কোনো কারখানা ব্যর্থ হলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান তিনি।

সম্মেলনে লেবার কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান, বাংলাদেশ তৃণমূল গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর শেখ লালন, বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ঠান্ডু ও গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের আশুলিয়া থানা সভাপতি রাকিব হাসান সোহাগসহ ১০টি শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :