Alexa

ঈদ বাজার জমে উঠার অপেক্ষায় ফুটপাত ব্যবসায়ীরা

ঈদ বাজার জমে উঠার অপেক্ষায় ফুটপাত ব্যবসায়ীরা

পুরোদমে জমে না উঠলে চলছে বেচাকেনা ফুটপাতের দোকানগুলোতে/ছবি: সুমন শেখ

ঈদ উপলক্ষে বাহারি ডিজাইন, বর্ণিল রঙের পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসলেও এখনও জমে উঠেনি ফুটপাতের বাজার। রাজধানীর হকার ও ফুটপাত ব্যবসায়ীরা অপেক্ষায় রয়েছে ঈদ বাজার জমে ওঠার।

নগরীর নিউমার্কেট এলাকা গুলিস্থানের আশপাশে সড়ক ও ফুটপাতে ঈদ-বাজার বসলেও প্রতিবারের মত ভিড় লক্ষ্য করা যায়নি। অবশ্য বিক্রেতারা বলছেন, ফুটপাতের ঈদ বাজার একটু দেরিতেই শুরু হয়। 

কেনাকাটায় নিম্ন মধ্যবিত্ত ও স্বল্প আয়ের মানুষদের ভরসা ফুটপাতের অস্থায়ী বাজার। রোজা শুরুর পর থেকে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত অস্থায়ী এই দোকানগুলো বসে। রাত দিন বিক্রি হয় বাহারি পোশাক, স্যান্ডেল, জুতোসহ নারীদের অলঙ্কারও।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/26/1558880736270.jpg

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, ভাসমান এসব দোকানগুলোতে কেউ ফুটপাতে আসন পেতে, কেউ বা প্লাস্টিকের হ্যাঙ্গারে ঝুলিয়ে আবার কেউ চৌকিতে বাহারি রঙ আর ডিজাইনের পোশাক সাজিয়ে রেখেছে। সব ধরনের পোশাকই এখানে পাওয়া যাচ্ছে।  সাইজ আর মানভেদে পোশাক মিলছে ১০০ থেকে ৫০০ টাকায়। তবে সবচেয়ে বেশি চোখে পড়েছে শিশুদের পোশাক।

ঈদ বাজারের বেচা-কেনা কেমন হচ্ছে জানতে চাইলে খুচরা ব্যবসায়ী মালেক মিয়া বার্তা২৪.কমকে বলেন, বিক্রি এখনও জমেনি। সাধারণত ফুটপাতের কেনাবেচা ২০ রোজার পরে থেকে পুরোদমে শুরু হয়। তবে একদম খারাপ যাচ্ছে না। ইফতারের পর থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত ভালো বিক্রি হয়। যত দিন যাবে বিক্রি বেড়ে যাবে।

কড়া দুপুরে ফাতেমা বেগম নামের এক গৃহিণী নিউমার্কেট এলাকায় এসেছেন বাচ্চাদের পোশাক কিনতে। তিনি বার্তা২৪.কমকে বলেন, সত্যি কথা বলতে কি বাচ্চাদের পোশাক ফুটপাতেই ভাল পাওয়া যায়। এখানে অনেক কাপড় থেকে দেখে শুনে কেনা যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/26/1558880754794.jpg

দামের বিষয়ে অন্য বিক্রেতা সাজেদুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে বলেন, যেহেতু ফুটপাতের কেনাকাটা ওই অর্থে জমজমাট হয়নি। সেহেতু দাম একটু বাড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে। বেচা বিক্রি শুরু হলে দাম কমে যাবে।

নিউমার্কেটের পাশে ঢাকা কলেজের সামনে শার্ট কিনছে ব্যাংকার মহিউদ্দিন। তিনি ফুটপাতের বাজার সম্পর্কে বলছেন, পরিবারের অনেক সদস্যের জন্য ঈদের কাপড় কিনতে হবে। ছেলেদের জন্য  বেশ কয়েকটি শার্ট নিতে হবে। ফুটপাত থেকে নিলাম। ভাল আর দামে পেয়েছি। 

এদিকে সরেজমিনে দেখা যায়, ফুটপাতে ছেলেদের শার্ট, প্যান্ট, টি-শার্ট, পাজামা-পাঞ্জাবি, টুপি সব পাওয়া যাচ্ছে। মেয়েদের জন্য রয়েছে ফ্রক, লেহেঙ্গা, ডিভাইডার টপস জুতা, সালোয়ার, কামিজ, গেঞ্জি, কসমেটিকসসহ হাল ফ্যাশনের সবই।

তবে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যাচ্ছে বাচ্চাদের প্যাকেজ পোশাক। ঘুরে ঘুরে যাচাই বাছাই করে পছন্দের পোশাকটি কিনছেন স্বল্প আয়ের মানুষগুলো।

আপনার মতামত লিখুন :