Barta24

সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

English

চাঙা হচ্ছে পুঁজিবাজার, বাজেটের অপেক্ষায় বিনিয়োগকারীরা

চাঙা হচ্ছে পুঁজিবাজার, বাজেটের অপেক্ষায় বিনিয়োগকারীরা
পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীরা বাজেটের অপেক্ষায়, ছবি: সংগৃহীত
মাহফুজুল ইসলাম
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
ঢাকা
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

আসছে বাজেট পুঁজিবাজারের জন্য থাকছে বিশেষ প্রণোদনা। এমন সু-সংবাদে টানা সাড়ে চার মাস দরপতনের পর চাঙা হতে শুরু করেছে দেশের পুঁজিবাজার। বাড়তে শুরু করেছে সূচক, লেনদেন ও বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম। তার তাতে বিনিয়োগকারীরা মূলধন অর্থাৎ পুঁজিও ফিরে পেতে শুরু করেছেন।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) তথ্য মতে, ঈদের আগেও পরে সর্বশেষ সাত কার্যদিবস লেনদেন হয়েছে। এই সাতদিনই পুঁজিবাজারে উত্থান হয়েছে। তাতে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ২২২ পয়েন্ট। লেনদেন ৩শ’ কোটি টাকার গড় থেকে বেড়ে ৫শ’ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। সব মিলিয়ে বিনিয়োগকারীদের মূলধন অর্থাৎ পুঁজি বেড়েছে ১৬ হাজার ৮৩৮ কোটি ২৯ লাখ ৯৩ হাজার টাকা। একইভাবে সিএসইতেও বেড়েছে লেনদেন সূচক ও বেশিভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পুঁজিবাজারের আস্থা ও তারল্য সংকট দূর করতে, ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের সহজ শর্তে প্রায় ৯শ’ কোটি টাকার ঋণ সহায়তা দিচ্ছে সরকার। পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোর সাবসিডারি প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ এক্সপোজার লিমিটের আওতা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বহুল আলোচিত অনৈতিক প্লেসমেন্ট বাণিজ্য বন্ধ করা হচ্ছে। প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) রুলসের পরিবর্তন করা হয়েছে। আইপিওতে বিনিয়োগকারীদের কোটা বাড়ানো হয়েছে।

এই সংস্কারগুলোর পরও আসছে বাজেটে পুঁজিবাজারে জন্য বিশেষ প্রণোদনা রাখা হচ্ছে বলে অর্থমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন। আর তাতে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে প্রত্যাশা আরও বেড়েছে। ফলে ২৮ লাখ বিনিয়োগকারী এখন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের বাজেট ঘোষণার দিকে তাকিয়ে আছেন। তিনি বাজেটে পুঁজিবাজারে কি প্রণোদনা দেন। তা দেখবেন, তারপর বিনিয়োগ শুরু করবেন।

অর্থ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় রাজস্ব র্বোডের (এনবিআর) সূত্র মতে, আসছে বাজেটে পুঁজিবাজারে তেমন কিছু রাখা হয়নি। তবে বিনা করে, বিনা শর্তে অপ্রদর্শিত অর্থ অর্থাৎ কালো টাকা সাদা করা এবং লভ্যাংশের ওপর করমুক্ত আয়ের সীমা ২৫ হাজার টাকার পরিবর্তে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত করা হচ্ছে। এ ছাড়া তৈরি পোশাক খাতের কোম্পানিগুলোর জন্য প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা নগদ সহায়তা দেওয়া হতে পারে বাজেটে।

ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়শনের (ডিবিএ) সভাপতি শাকিল রিজভী বার্তা২৪.কমকে বলেন, সম্প্রতি শেয়ারবাজারের জন্য বেশকিছু ভালো উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বাজেটে প্রণোদনা দেওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। বাজারে এসব উদ্যোগের ইতিবাচক প্রভাব পড়াটাই স্বাভাবিক।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রাইম ব্যাংক-উত্তরা মোটরস-এর সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

প্রাইম ব্যাংক-উত্তরা মোটরস-এর সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর
স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, ছবি: সংগৃহীত

মোটরসাইকেল ফাইন্যান্সিং ও কার লোনে ক্রেতাদের বিশেষ সুবিধা দিতে উত্তরা মোটরস লিমিটেডের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে প্রাইম ব্যাংক।

সম্প্রতি, প্রাইম ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে এ স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী রাহেল আহমেদ এবং উত্তরা মোটরস লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিউর রহমানের উপস্থিতিতে প্রাইম ব্যাংকের কনজিউমার ব্যাংকিং বিভাগের প্রধান এএনএম মাহফুজ এবং উত্তরা মোটরস-এর পরিচালক (অর্থ ও প্রশাসন) এবিএম হুমায়ুন কবির, এফসিএমএ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। এ সময় উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এই চুক্তির ফলে প্রাইম ব্যাংক ও উত্তরা মোটরস যৌথভাবে মোটরসাইকেল ফাইন্যান্সিং ও কার লোনে ক্রেতাদের বিশেষ সেবা ও সুবিধা প্রদান করবে। উত্তরা মোটরস বাংলাদেশে ভারতের বাজাজ অটো লিমিটেড-এর একমাত্র পরিবেশক।

৭ দিনের মধ্যে ৪ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংককে পরিকল্পনা জমা দেওয়ার নির্দেশ

৭ দিনের মধ্যে ৪ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংককে পরিকল্পনা জমা দেওয়ার নির্দেশ
চার রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের সঙ্গে অর্থমন্ত্রীর সভা/ ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

রাষ্ট্রায়ত্ত চারটি ব্যাংকের উচ্চ পর্যায়ে নতুন নেতৃত্ব এসেছে। আগামী দিনে নতুন নেতৃত্ব কিভাবে ব্যাংক পরিচালনা করবে, তার একটি পরিকল্পনা পরবর্তী সাতদিনের মধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ে জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

রোববার (২৫ আগস্ট) দুপুরে শেরে ই বাংলা নগরস্থ পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে চার রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক সোনালী, রূপালী, জনতা ও অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের সঙ্গে আলোচনা সভায় এ নির্দেশ দেন অর্থমন্ত্রী। সভা শেষে বিকালে সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

মুস্তফা কামাল বলেন, ‘দুই সপ্তাহ পর তাদের দেওয়া কর্মপরিকল্পনা নিয়ে আবার বসে বিস্তারিত আলোচনা করব। যদিও সংখ্যা চারটি কিন্তু ব্যাংকিং সেক্টরে তাদের অবস্থান বড়। যেমন আমানত খাতে প্রায় ২৫ শতাংশ এ চারটি ব্যাংক নিয়ন্ত্রণ করে।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘চার ব্যাংকের কাছে সরকারের চাহিদা হলো খেলাপি ঋণ বাড়াতে পারবে না। ন্যূনতম ১৫ শতাংশ মুনাফা করতে হবে। তারা যে ঋণ দেবে, তার জামানতগুলো যেন এনক্যাশেবল হয় দায়িত্ব নিয়ে সেই কাজটি করবে।’

তিনি জানান, এবার বাজেটে ব্যাংকগুলোর জন্য বরাদ্দ আছে। তবে সামনে আর বরাদ্দ রাখা হবে না। জনগণকে সেবা দিয়ে আয় করেই ব্যাংকগুলোকে চলতে হবে।

ব্যাংকের তারল্য সংকট নিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এক্সচেঞ্জ খাতে আজ পর্যন্ত আমাদের তারল্য প্রায় ৯২ হাজার কোটি টাকা।’

খেলাপি ঋণের বিষয়ে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘নন-পারফর্মিং লোন কমার কোনো সুযোগ নেই। কারণ নন-পারফর্মিং লোনের জন্য যে এক্সিট প্লানটা দিয়েছিলাম সেটি এখনো কার্যকর করতে পারিনি। কিছুটা জটিলতা আছে।’

আগামীতে রফতানি কমার শঙ্কার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘অর্থনীতিতে যদি কোনো সংকট আসে, তাহলে ক্ষতিগ্রস্ত হয় আপার এন্ডগুলো। মিড ও লোয়ার এন্ড ততটা ক্ষতিগ্রস্ত হয় না। আমাদের অর্থনীতিকে মিড ও লোয়ার এন্ডে দেখি। এজন্য এখানে ক্ষতি হওয়ার কারণ নেই। আমাদের পুঁজি বাজারেও বাইরের কোনো পুঁজি নেই। সুতরাং আমাদের ক্ষতি হওয়ার শঙ্কা নেই।’

সভায় উপস্থিত ছিলেন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম, ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ, অর্থ-সচিব আবদুর রউফ তালুকদার, সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আতাউর রহমান প্রধান, জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান জামালউদ্দিন আহমেদ, রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ওবায়েদ উল্লাহ আল মাসুদ, অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ শামস উল ইসলাম প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র