বরাদ্দ বেড়েছে বস্ত্র ও পাটে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বস্ত্র ও পাট খাতে ৭৯৯ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় ৬২ কোটি টাকা বেশি।

গত বছর এই খাতের বাজেট ছিল ৭৩৭ কোটি টাকা। নতুন বাজেটে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন খাতের ওপর বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদে ‘সমৃদ্ধির সোপানে বাংলাদেশ, সময় এখন আমাদের’ শিরোনামে দেশের ৪৮তম বাজেট ঘোষণা করতে শুরু করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। কিন্তু তিনি অসুস্থ থাকায় পরে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের পরিচালন খাতে ১৯৯ কোটি ও উন্নয়ন খাতে ৬শ' কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। গত বছর এই মন্ত্রণালয়ের পরিচালন খাতে বরাদ্দ ছিল ১৮৫ কোটি ও উন্নয়ন খাতে বরাদ্দ ছিল ৫৫২ কোটি টাকা।

বাজেট বক্তৃতায় বলা হয়, বর্তমান বৈশ্বিক বাণিজ্যের প্রেক্ষাপটে বস্ত্র ও পাট খাতটিও একটি বিকাশমান ও সম্ভাবনাময় খাত। এ বিবেচনায় সরকার এই খাতটির জন্য বিদ্যমান নগদ প্রণোদনাসহ সব ধরনের সুযোগ সুবিধা অব্যাহত রেখেছে।

তৈরি পোশাক রফতানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে আগামী অর্থবছরে অবশিষ্ট সব খাতে তৈরি পোশাক রফতানিতে এক শতাংশ হারে রফতানি প্রণোদনা দেওয়ার প্রস্তাব করা হয় বাজেট বক্তব্যে।

আপনার মতামত লিখুন :