Barta24

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ৩১ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

ডিএসইতে সূচক কমলেও বাড়ছে সিএসইতে

ডিএসইতে সূচক কমলেও বাড়ছে সিএসইতে
ছবি: সংগৃহীত
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার (১৭ জুন) সূচক কমলেও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সামান্য বেড়ে লেনদেন চলছে।

বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ২২ পয়েন্ট, তবে সিএসইর প্রধান সূচক সিএসসিএক্স বেড়েছে ১৩ পয়েন্ট।

এছাড়া একই সময়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৯৮ কোটি ১৯ লাখ টাকা এবং সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৪৭ লাখ টাকা।

ডিএসই ও সিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসই

এদিন ডিএসইতে লেনদেনের শুরুতে সূচক বাড়ে। লেনদেন শুরু হয় সাড়ে ১০টায়, শুরুতেই সূচক বেড়ে যায়। প্রথম ১০ মিনিটে ডিএসইএক্স সূচক বাড়ে মাত্র ২ পয়েন্ট। এরপর থেকে সূচক এক টানা কমতে থাকে। বেলা ১০টা ৫০ মিনিটের পর সূচক ২ পয়েন্ট কমে যায়। বেলা ১০টা ৫০ মিনিটে সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে। আর বেলা ১১টায় সূচক ২২ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ৫ হাজার ৪০৮ পয়েন্টে।

অন্যদিকে, ডিএসই-৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৯০০ পয়েন্টে এবং ডিএসই শরিয়াহসূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ২৩১ পয়েন্টে।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯৬ কোটি ১৯ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। একই সময়ে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৮৬টির, কমেছে ১৬৫টির এবং অপরিবর্তীত রয়েছে ৪৩টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত ডিএসইতে দাম বৃদ্ধি পাওয়া শীর্ষ ১০ কোম্পানির তালিকায় আছে-মুন্নু সিরামিকস, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার, ইউনাইটেড পাওয়ার, নর্দান ইন্স্যুরেন্স, জেএমআই সিরিঞ্জ, নিউ লাইন, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, মুন্নু স্টাফলারস এবং বঙ্গজ।

সিএসই

অন্যদিকে, একই সময়ে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ সূচক (সিএসইএক্স) ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৮৭ পয়েন্টে, সিএসই-৩০ সূচক ৫১ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ৪৩৪ পয়েন্টে এবং সিএএসপিআই সূচক ১৬ পয়েন্ট বেড়ে ১৬ হাজার ৬৪০ পয়েন্টে অবস্থান করে।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ কোটি ৪৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

একই সময়ে দাম বাড়ার ভিত্তিতের সিএসইর শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো- ইমাম বাটন, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, মুন্নু সিরামিকস, আইপিডিসি, বিচ হ্যাচারি, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার এবং এসিআই।

আপনার মতামত লিখুন :

পিপলস লিজিংয়ের সঙ্গে ব্যাংকের লেনদেনে নিষেধাজ্ঞা

পিপলস লিজিংয়ের সঙ্গে ব্যাংকের লেনদেনে নিষেধাজ্ঞা
পিপলস লিজিং

পুঁজিবাজারে শেয়ার লেনদেন বন্ধের একদিন পর পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের (পিএলএফএসএল) সঙ্গে দেশের সব তফসিলি ব্যাংককে কোন ধরনের লেনদেন না করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সোমবার (১৬ জুলাই) বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) থেকে ‘গো এএমএল’ সফটওয়ারের মাধ্যমে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. আসাদুজ্জামান খান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, বিএফআইইউ’র ‘গো এএমএল’ সফটওয়ারের মাধ্যমে পিপলস লিজিংয়ের সঙ্গে সব ধরনের লেনদেন বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এখন প্রতিষ্ঠানটির সম্পদ বিষয়ক সব ধরনের সিদ্ধান্ত দেবেন আদালত।

পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের অবসায়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে কত দিন সময় লাগতে পারে সে বিষয়ে সঠিক কোন তথ্য দিতে পারেননি তিনি।

পিপলস লিজিংয়ে ১ হাজার ১৩১ কোটি টাকা ঋণের মধ্যে খেলাপি ৭৪৮ কোটি টাকা, যা মোট ঋণের ৬৬ দশমিক ১৪ শতাংশ। ধারাবাহিক লোকসানের কারণে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এ প্রতিষ্ঠানটি ২০১৪ সালের পর থেকে কোন লভ্যাংশ দিতে পারেনি।

গত ২১ মে বাংলাদেশ ব্যাংক অর্থমন্ত্রণালয়ে পিপলস লিজিংয়ের অবসায়নের আবেদন করে। বাংলাদেশ ব্যাংকের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ২৬ জুন অর্থমন্ত্রণালয় তা অনুমোদন দেয়। গত ১০ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংক অবসায়নের বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে অবহিত করে।

এরই ধারাবাহিকতায় ১৪ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংক আদালতে অবসায়ক নিয়োগ দেওয়ার জন্য আবেদন করলে বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ-মহাব্যাবস্থাপক মো. আসাদুজ্জামান খানকে সাময়িকভাবে অবসায়ক নিয়োগ দেন আদালত।

পিপলস লিজিংয়ের অবসায়নে দায়ের করা বাংলাদেশ ব্যাংকের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠানটির সাবেক ৯ পরিচালকসহ ১১ জনের হিসাব জব্দ করার নির্দেশ দেন হাইকোর্টের বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশিদ আলম সরকার।

যেসব ব্যক্তির ব্যাংক হিসাব ও স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তারা হলেন- পিপলস লিজিংয়ের সাবেক পরিচালক এম মোয়াজ্জেম হোসেইন, নারগিস আলামিন, হোমাইরা আলামিন, আরেফিন সামসুল আলামিন, মোহাম্মদ ইউসুফ ইসমাইল, মতিউর রহমান, বিশ্বজিৎ কুমার রায়, খবিরুদ্দিন মিয়া, মোহাম্মদ সহিদুল হক এবং পিপলস লিজিংয়ের শীর্ষ দুই কর্মকর্তা কবির মুস্তাক আহমেদ ও নৃপেন্দ্র চন্দ্র পণ্ডিত। এ ১১ ব্যক্তির সম্পদ ও ব্যাংক হিসাবের ওপর কেন অন্তর্বর্তী নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে না, তা-ও জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

এমএফএস’র অপব্যবহার রোধে জয়পুরহাটে বিকাশের কর্মশালা

এমএফএস’র অপব্যবহার রোধে জয়পুরহাটে বিকাশের কর্মশালা
জয়পুরহাটে বিকাশের কর্মশালা, ছবি: সংগৃহীত

অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের (এমএফএস) মত গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় সেবার ব্যবহার প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে জয়পুরহাটে সমন্বয় কর্মশালা করেছে বিকাশ।

দেশের অন্যতম মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশের এ কর্মশালায় জয়পুরহাটের স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার প্রতিনিধি, বিকাশের ডিস্ট্রিবিউটর ও এজেন্টরা অংশ নেন।

কর্মশালায় বিকাশের হেড অব এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স এ কে এম মনিরুল করিম, জয়পুরহাট জেলা পুলিশের এডিশনাল এসপি সাজ্জাদ হোসেন ও গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফরিদ হোসেইন উপস্থিত ছিলেন।

এমএফএস সেবার অপব্যবহার রোধ এবং এ বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে এজেন্টরা কি ধরনের পদক্ষেপ নিতে পারেন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো কীভাবে এমএফএস’র অপব্যবহার রোধে ভূমিকা পালন করতে পারে, সেসব বিষয়ে কর্মশালায় বিস্তারিত আলোকপাত করা হয়।

উল্লেখ্য, এমএফএস সেবার অপব্যবহার রোধে বিকাশ নিয়মিত দেশের বিভিন্ন জেলায় এজেন্ট ও ডিস্ট্রিবিউটরদের জন্য এ ধরনের কর্মশালা আয়োজন করে আসছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র