'দেশে ধনী বৃদ্ধির হার যেকোনো দেশের চেয়ে বেশি'



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রেসক্লাবে প্রস্তাবিত বাজেট ২০১৯-২০ এর ওপর মতবিনিময় সভা,  ছবি: বার্তা২৪.কম

প্রেসক্লাবে প্রস্তাবিত বাজেট ২০১৯-২০ এর ওপর মতবিনিময় সভা, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে এখন অতি ধনী বৃদ্ধির হার বিশ্বের যেকোনো দেশের চেয়ে বেশি বলে জানিয়েছেন একশন এইড বাংলাদেশের পরিচালক আসগর আলী সাবরি।

তিনি বলেছেন, 'ধনী বৃদ্ধির হারে বিশ্বে আমরা দ্বিতীয়। সরকারি তথ্যমতে, পাঁচ শতাংশ মানুষের কাছে যে পরিমাণ সম্পদ আছে তা বাকি ৯৫ শতাংশের চেয়ে বেশি। এর থেকে বোঝা যায়, প্রবৃদ্ধি সমভাবে ভাগ করা হচ্ছে না। যেই প্রক্রিয়ায় বাজেট করা হচ্ছে এতে ধনীরা আরও ধনী, আর গরিবরা আরও গরিব হয়ে পড়ছে।'

সোমবার (২৪ জুন) প্রেসক্লাবে গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের উদ্যোগে প্রস্তাবিত বাজেট ২০১৯-২০ এর ওপর মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, 'আমাদের দেশে কালো টাকার পরিমাণ অনেক বেশি। কালো টাকার পরিমাণ জিডিপির ৪০ শতাংশের বেশি। সরকার এদের সুযোগ করে দিয়েছে, ১০ শতাংশ হারে কর দিয়ে কালো টাকা সাদা করার।'

তিনি আরও বলেন, 'তরুণদের কর্মসংস্থানের জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। এই বরাদ্দে তিন কোটি তরুণের জন্য কর্মসংস্থান কীভাবে বাস্তবায়ন হবে তার সঠিক কোনো নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।'

বাজেটে বৈষম্যের সৃষ্টি না করে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় গড়ে তুলতে এবং বাজেট কাঠামোকে ঢেলে সাজানোর দাবি জানান তিনি।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- জাসদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক রাকেনুজ্জান রতন, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কাফী প্রমুখ।