প্রণোদনায়ও থামছে না পুঁজিবাজারের দরপতন

মাহফুজুল ইসলাম, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
প্রতীকী

প্রতীকী

  • Font increase
  • Font Decrease

২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে পাঁচ দফা প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা ছিল বাজেট ঘোষণার পর পুঁজিবাজার চাঙা হবে। কিন্তু বাজেট ঘোষণার পর থেকেই দেশের দুই পুঁজিবাজারে চলছে অব্যাহত দরপতন। সবশেষ সাত কার্যদিবসের মধ্যে চার কার্যদিবসেই কমেছে সূচক। ফলে বিনিয়োগকারীরা সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকা পুঁজি হারিয়েছেন।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বাজেটে কোম্পানির রিজার্ভের ওপর ১৫ শতাংশ এবং কর পরিশোধ করে বোনাস শেয়ার/লভ্যাংশ দিলে তার ওপর আরও ১৫ শতাংশ কর আদায়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে পুঁজিবাজারে দরপতন হচ্ছে। তবে কোম্পানির রিজার্ভের ওপর প্রস্তাবিত কর হার বাতিল এবং আবাসন ও শিল্প খাতের মতো পুঁজিবাজারে বিনা শর্তে কালো টাকা বিনিয়োগের বিধান থাকলে পুঁজিবাজার ঘুরে দাঁড়াতে পারে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) তথ্য মতে, গত ১৩ জুনের পর থেকে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৮৭ পয়েন্ট। আর বিনিয়োগকারীরা পুঁজি হারিয়েছেন পাঁচ হাজার ৪৪৩ কোটি টাকা। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) থেকে বিনিয়োগকারীরা পুঁজি হারিয়েছেন পাঁচ হাজার ১৪৯ কোটি টাকার বেশি।

প্রস্তাবিত বাজেটে উল্লেখ করা হয়েছে, কোম্পানির অর্জিত মুনাফা থেকে বিনিয়োগকারীদের ডিভিডেন্ড দেওয়ার পরিবর্তে রিটেইনড আর্নিংস বা বিভিন্ন ধরনের রিজার্ভ হিসেবে রেখে দেওয়ার প্রবণতা বাড়ছে। এতে প্রত্যাশিত ডিভিডেন্ড পান না বিনিয়োগকারীরা। ফলে পুঁজিবাজারে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে৷ এ ধরনের প্রবণতা রোধে কোম্পানির কোন আয় বছরে রিটেইনড আর্নিংস, রিজার্ভ ইত্যাদির সমষ্টি যদি পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি হয় তাহলে যতটুকু বেশি হবে তার ওপর সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে অতিরিক্ত ১৫ শতাংশ হারে কর দিতে হবে।

বাজেটে রিজার্ভের ওপর ১৫ শতাংশ হারে কর বৃদ্ধির বিষয়টি পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়ে ডিএসইর পরিচালক মিনহাজ মান্নান ইমন বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘উদ্যোক্তারাই কোম্পানি চালাবেন। তারাই শেয়ারহোল্ডারদের স্বার্থ সংরক্ষণ করবেন এবং লভ্যাংশ দেবেন। কোম্পানি পুঁজি গঠনের জন্য কাজ করবে। তবে এই পুঁজি গঠনের প্রক্রিয়া যদি বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে কোম্পানির দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন সম্ভব না।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাজেটে রিজার্ভের ওপর ট্যাক্স নির্ধারণের প্রস্তাব নিয়ে কোথাও ভুল হয়েছে। কনসেপ্টটা সঠিক নয়। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনও (বিএসইসি) এ বিষয়ে উদ্বিগ্ন। তারা বিষয়টি সমাধানে উদ্যোগী হবে বলে আশা করছি। তবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বিষয়টি পুনর্বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছেন।’

আপনার মতামত লিখুন :