‘ব্যাংকিং সেক্টরে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সেমিনারে বক্তব্য দেন অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির, ছবি: বার্তা২৪

সেমিনারে বক্তব্য দেন অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

অর্থনীতিতে ব্যাংকারদের ভূমিকা অনস্বীকার্য এটা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। তবে দেশে ঋণ খেলাপির সংখ্যা বাড়ছে। এমন অবস্থায় ব্যাংকিং সেক্টরে ও শেয়ারবাজারের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে বলে জানিয়েছেন অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির।

শনিবার (২৯ জুন) বিকেল ৫টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘জাতীয় বাজেটে ২০১৯-২০ বাস্তবায়নে ব্যাংকারদের রয়েছে অগ্রণী ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা সভায় তিনি এ কথা জানান। অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক অফিসার্স বাংলাদেশের উদ্যোগে এ সেমিনার ও সভার আয়োজন করা হয়।

আহমেদ ফিরোজ কবির বলেন, ‘ব্যাংকিং সেক্টরের অস্থিরতা কমিয়ে এনে বঙ্গবন্ধুর বৈষম্যমুক্ত অর্থনীতির বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনারা যারা ব্যাংকের কর্মকর্তা আছেন আপনাদের ভূমিকা অনস্বীকার্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে দেশকে ভালোবাসতে হবে। আমরা সূচক দিয়ে পরিমাপ করি দেশ কতটা এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিচালনায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া নতুন নতুন সেক্টর যুক্ত হচ্ছে আমাদের অর্থনীতিতে।’

অর্থমন্ত্রীর বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ‘২০৩০ সাল থেকে আমাদের আর বাইরের দেশ থেকে ঋণ নিতে হবে না। তখন আমরা বাইরের দেশকে ঋণ দেব। এ স্বপ্ন আমরা দেখি এবং এটা আমরা অবশ্যই পারব।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, ‘খেলাপি ঋণ আদায় করতে হবে। তা না হলে খেলাপি ঋণের পরিমাণ পাপোশের নিচে পড়ে যাবে। এ ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের স্বাধীনতা আরও বাড়াতে হবে।’

অ্যাসোসিয়েশন অফ ব্যাংক অফিসার্স বাংলাদেশের সভাপতি মুহা. মহিউদ্দিন হাওলাদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইসমাইল, বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. জামাল উদ্দিন আহমেদ, রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান আহমেদ আল কবির, বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মো. আক্তারুজ্জামানসহ আরও অনেকেই।

আপনার মতামত লিখুন :