পুঁজিবাজারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান বিনিয়োগকারীরা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
ডিএসই'র সামনে বিনিয়োগকারীদের মানববন্ধন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ডিএসই'র সামনে বিনিয়োগকারীদের মানববন্ধন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চান বিনিয়োগকারীরা। পুঁজিবাজারে দরপতনের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবারও (১৮ জুলাই) মতিঝিলের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনকালে এ কথা বলেন তারা।

আগেরদিনের ন্যায় দুপুর ২টার দিকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেন বিনিয়োগকারীরা। বেলা ৩টায় শেষ হয় এ কর্মসূচি।

তারা বলেন, 'একটি জটিল অবস্থা বিরাজ করছে পুঁজিবাজারে। এমন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কী পদক্ষেপ নেবেন, তা দেখার বিষয়। তবে প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপ বিনিয়োগবান্ধব হবে বলেই আমরা আশা রাখি।'

এর ফলে টানা সাতদিনের মতো মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন বিনিয়োগকারীরা। বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ঐক্যপরিষদের সভাপতি বলেন, 'আমরা প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেব'।

প্রতিদিনের মতোই 'খায়রুল তুই রাজাকার, কমিশনের গদি ছাড়' স্লোগানে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক খায়রুল হোসেনের পদত্যাগসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছেন তারা।

গুরুত্বপূর্ণ দাবিগুলো হচ্ছে- নতুন করে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) অনুমোদন ও প্লেসমেন্ট বন্ধ, ১০ হাজার কোটি টাকার নতুন ফান্ড গঠন, বোনাস শেয়ার ও রাইট শেয়ার দেওয়া বন্ধ ইত্যাদি।

বিক্ষোভে বিনিয়োগকারীরা বলেন, 'চলতি বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত পুঁজিবাজারে পতন অব্যাহত রয়েছে। শুরু থেকেই আমরা বাজারের পতন ঠেকাতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করে আসছি। কিন্তু এতেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোনো ভূমিকা দেখা যাচ্ছে না। কেউই আমাদের দিকে নজর দিচ্ছে না।'

বিনিয়োগকারীরা বলেন, 'সত্যিকার অর্থে যদি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতায় কাজ করত তবে এতদিন পুঁজিবাজারে স্থিরতা চলে আসত।'

বাজারের এই দুর্দশা ফেরাতে চলমান অস্থিরতা দূর করতে আবারও বিএসইসির প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে বিনিয়োগকারীরা।

আপনার মতামত লিখুন :