রাষ্ট্রীয় কোষাগারের জন্য ব্যাংকে তারল্য সংকট হবে না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৫তম সভায় অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৫তম সভায় অর্থমন্ত্রী

  • Font increase
  • Font Decrease

রাষ্ট্রীয় কোষাগারের জন্য ব্যাংকগুলোতে কোনো তারল্য সংকট হবে না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার (০৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৫তম সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, অর্থ মন্ত্রণালয়ের কোনো ব্যাংক নাই, অফিসে সুটকেসও নেই; টাকা এনে কোথায় রাখব। কোনো ব্যাংক থেকে টাকা নেওয়া হবে না, ফলে কোনো ব্যাংকের লিকুইডিটি (তারল্য) সংকট হবে না। ডিপোজিট যেগুলো চলমান আছে, তা ভাঙা হবে না। আমাদের শুধু জানাতে হবে, কোথায় কোথায় তাদের ডিপোজিট আছে।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, রাষ্ট্রীয় কোষাগারের মাধ্যমে রাষ্ট্রের সকল জমার বিষয়টি জানা আমাদের সাংবিধানিক চাহিদা। আমরা লক্ষ্য করেছি, সরকার থেকে টাকা নিয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর তারা মনে করে এটা তাদের টাকা। তখন তারা সেই টাকা সৎভাবে ব্যবহার করে না। বিভিন্ন অনিয়ম করে থাকে। এখানে সমন্বিতভাবে রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি সঠিকভাবে ব্যবহার করা গেলে অনেক বেশি সফলতা পাওয়া যেত।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা দেখেছি, এনবিআর যেহেতু রাজস্ব আহরণ করে, তাদের কাছে টাকা আছে। তারা মনে করে, সেখান থেকে যা খরচ করে এটা তাদের হক। তারা একনেকের অনুমোদন নেয় না, প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন নেয় না। এমনকি কোন কমিটির অনুমোদন না নিয়ে বিরাট বিরাট বিল্ডিং নির্মাণ শুরু করে। এভাবে কি চলতে পারে? কিন্তু, এটি করা হচ্ছে। এনবিআরের কাছে যথেষ্ট টাকা রাখা হচ্ছে, তাদের কাছে কোন প্রজেক্ট থাকলে তারা টাকা রাখতে পারবে। তাদের যে টাকা এই মুহূর্তে দরকার নাই, সে টাকা আমরা সরকারি কোষাগারে নিয়ে আসছি।

আপনার মতামত লিখুন :