বহুতল ভবন-অফিস-ফ্ল্যাট বিমার আওতায় আনা হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের সঙ্গে বিমা প্রতিষ্ঠান সমূহের চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাদের সাথে তিন ঘণ্টার মতবিনিময় সভা।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের সঙ্গে বিমা প্রতিষ্ঠান সমূহের চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাদের সাথে তিন ঘণ্টার মতবিনিময় সভা।

  • Font increase
  • Font Decrease

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, 'প্রতিটা জায়গা আমরা যদি ইন্স্যুরেন্সের আওতায় আনতে পারি, তাহলে আমাদের অর্থনীতিতে শক্তিশালী হবে। তাই পর্যায়ক্রমে বহুতল ভবন-অফিস ও ফ্ল্যাটকেও ইন্স্যুরেন্সের আওতায় আনা হবে।

রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে বিমা প্রতিষ্ঠান সমূহের চেয়ারম্যান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাদের সাথে তিন ঘণ্টার মতবিনিময় সভা শেষে ব্রিফ্রিং করে এসব কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল।

অর্থমন্ত্রী বলেন, 'বিমা সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। এই খাতে আরো কিভাবে নতুনত্ব আনা যায় সেই বিষয়ে কথা হয়েছে। বিমা খাতের সংশ্লিষ্টরা দাবি জানিয়েছেন, সবাই কোনো না কোনো ফ্ল্যাটে থাকেন। তাদের নিরাপত্তা স্বার্থে এসব ফ্ল্যাটগুলোকেও ইন্স্যুরেন্স এর আওতায় আসতে বাধ্য করা হোক। একই সাথে প্রত্যেকটা অফিস, বহুতল বিল্ডিং বা নিচু বিল্ডিং এসবগুলোকেও শতভাগ ইন্স্যুরেন্সের আওতায় আসতে হবে'।

অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল বলেন, 'বিদেশে কুকুর-বিড়ালের ইন্স্যুরেন্স আছে। আমাদের দেশেও পর্যায়ক্রমে সকল বিষয়কে ইন্স্যুরেন্স এর আওতায় আসতে হবে। বিমা খাতের পরিস্থিতি আগের চেয়ে যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে। গত তিন থেকে ছয় মাসে বিমা সম্পর্কিত কোনো খারাপ নিউজ আসে নাই। আগে বিমা নিয়ে হরহামেশাই নেতিবাচক কথা শুনতাম। এখন তার কিছুই শুনিনা এটা একটা ভালো দিক।

আপনার মতামত লিখুন :