আলোচিত আবরার নিহত মামলার প্রতিবেদন ২৭ জুন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
আবরার আহমেদ চৌধুরী, ছবি: সংগৃহীত

আবরার আহমেদ চৌধুরী, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীকে চাপা দেওয়া সুপ্রভাত পরিবহনের বাসটির মালিক ও চালকের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৭ জুন দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২১ মে) মামলাটির প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) পরিদর্শক কাজী শরীফুল ইসলাম প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী এ নতুন তারিখ নির্ধারণ করেন।

মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন- ঘাতক বাসটির মালিক ননী গোপাল সরকার, চালক সিরাজুল ইসলাম, কন্ডাক্টর মো. ইয়াছিন আরাফাত ও হেলপার মো. ইব্রাহিম হোসেন।

তারা গ্রেফতারের পর বিভিন্ন সময় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তারা বর্তমানে কারাগারে আটক আছেন।

গত ১৯ মার্চ সুপ্রভাত পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো-ব- ১১-৪১৩৫) বাসটি বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালিয়ে আবরারকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ওই ঘটনায় গুলশান থানায় মামলা হয়, পরে বাসের চালক সিরাজুল ইসলামকে আটক করে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে সিরাজুল জানান, ভিক্টোরিয়া পার্ক থেকে ছেড়ে আসা সুপ্রভাত বাসটি শাহজাদপুর বাঁশতলা অতিক্রম করার সময় মিরপুর আইডিয়াল গার্লস কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী সিনথিয়া সুলতানা মুক্তাকে চাপা দেয়। এতে গুরুতর জখম হন মুক্তা।

ওই ঘটনায় যাত্রীরা চালক সিরাজুলকে আটক করে ট্রাফিক পুলিশে সোপর্দ করে। পরে জনতা বাসটির ক্ষতি করতে পারে, এমন আশঙ্কায় হেলপার ইয়াসিন আরাফাত মালিকের নির্দেশে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে বাস নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। ওই সময় ওই গাড়ির নিচে চাপা পড়েন মারা যান আবরার।

আপনার মতামত লিখুন :