আদালত কর্মচারী-পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
আদালত কর্মচারী-পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা। ছবি: প্রতীকী

আদালত কর্মচারী-পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা। ছবি: প্রতীকী

  • Font increase
  • Font Decrease

বগুড়া জেলা জজ আদালতের কর্মচারী এবং পুলিশের উপ-পরিদর্শকের (এসআই) নামে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (২৬ নভেম্বর) বিকেলে সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন দুদক বগুড়া সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম। মামলা নং-১০৪।

এ মামলায় আসামি করা হয়েছে বগুড়া জেলা জজ আদালতের লাইব্রেরি সহকারী খলিলুর রহমান ও নওগাঁ জেলা পুলিশে কর্মরত উপ-পরিদর্শক আমিরুল ইসলামকে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৯ জানুয়ারি বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার বাসিন্দা খলিলুর রহমান জেলা জজ আদালতে লাইব্রেরি সহকারী পদে যোগদান করেন। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং অন্যান্য বিষয়ে তদন্তের জন্য জজ আদালত থেকে জেলা পুলিশের কাছে পাঠানো হয়। সেই সময় বগুড়া জেলা পুলিশের বিশেষ শাখায় কর্মরত উপ-পরিদর্শক আমিরুল ইসলাম তদন্ত করেন। লাইব্রেরি সহকারী পদে চাকরি পাওয়া খলিলুর রহমানের দাখিল করা শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র জাল ছিল। তবে ঘুষের বিনিময়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম তা সঠিক রয়েছে মর্মে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

পরবর্তী সময়ে এ বিষয়ে অভিযোগ হলে দুদক অনুসন্ধান করে জানতে পারে খলিলুর রহমানের দাখিল করা শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র জাল। তিনি জাল সনদপত্র দিয়ে চাকরি নিয়ে ২০১৪ সালের ১৯ জানুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ৬ লাখ ২৯ হাজার ২২৯ টাকা বেতন-ভাতা উত্তোলন করে সরকারের ক্ষতি করেছেন এবং তাকে জাল সনদপত্র দিয়ে চাকরি করতে সহযোগিতা করায় উপ-পরিদর্শক আমিরুল ইসলামের নামে এই মামলা দায়ের করা হয়।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামলাটি তদন্ত করবে দুদক।

আপনার মতামত লিখুন :